তেহরান: ধর্মীয় আইনের গেরোয় এবার অবলা কুকুর৷ পোষ্য হতে পারে৷ কিন্তু তাকে নিয়ে রাস্তায় চলাচল করা সম্পূর্ণ অ-মুসলিম জনিত কাজ বলেই বিবেচিত হবে৷ এমনই অভিনব ফতোয়া দিল ইলসামি প্রজাতন্ত্র ইরান৷ এই নির্দেশের বলে এবার থেকে দেশটির রাস্তায় কুকুর নিয়ে হাঁটা পথচারীদের উপর নেমে আসতে চলেছে শাস্তির কোপ৷ ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ান এই খবর দিয়েছে৷

সংবাদপত্রের ওয়েব সংস্করণের রিপোর্ট- ‘Officials in Iran BAN dog walking amid fears keeping the ‘un-Islamic’ pets creates ‘fear and anxiety’ among the public’ রিপোর্টে বলা হচ্ছে-তেহরান পুলিশের কাছে নির্দেশিকা এসেছে৷ সেই নির্দেশিকায় পথচারীদের সঙ্গে কুকুর থাকলে কড়া ব্যবস্থা নিতে হবে৷ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হুসেইন রাহিমি জানিয়েছেন, শুধু পথচারীদের সঙ্গে রাস্তায় থাকা পোষ্য কুকুর নয় বরং গাড়ির ভিতরেও কুকুর থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

পুরো নির্দেশিকা ইসলামি আইন অনুসারে তৈরি করা হয়েছে বলেই জানিয়েছেন ব্রিগেডিয়ার রাহিমি৷ তিনি বলেন কুকুরের উপযোগিতা রয়েছে৷ তবে তারা মল-মূত্র রাস্তায় ত্যাগ করে৷ ফলে পরিবেশ খারাপ হয়৷ এই আইনের বদলে সেটাই আটকানোর চেষ্টা চলছে৷

এদিকে নতুন আইনের কথা ছড়িয়ে পড়তেই ইরানি কুকুরপ্রেমীদের মাথায় হাত৷ অনেকেই দুঃখ ও ক্ষোভ দেখিয়েছেন৷ কেউ জানিয়েছেন, নয় বছর আগে একটি নির্দেশিকায় দেশের সংস্কৃতি মন্ত্রক ও একটি ধর্মীয় সংগঠন পোষ্যদের নিয়ে বিজ্ঞাপনের ছবি নিষিদ্ধ করেছে৷ এবার রাস্তায় কুকুর নিয়ে চলাতে কোপ পড়ল৷

প্রশ্ন উঠছে, রাস্তায় কুকুর নিয়ে চলার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি তো হল৷ এবার কি উট নিয়ে চলার ক্ষেত্রেও কোনও আইন জারি হবে৷ কারণ ইরানের রাস্তায় প্রায় সময়েই উট সহ অনেককে যেতে আসতে দেখা যায়৷