ফাইল ছবি

ভুবনেশ্বরঃ  কলেজ শিক্ষাক্ষেত্রে আরও কড়া হল ওডিশা সরকার। এখন থেকে ৭ ঘণ্টা কলেজে থাকতেই হবে শিক্ষকদের। শুক্রবার এমনই এক বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে এই নিয়ম লাগু হবে কলেজের অধ্যক্ষের জন্যও। সেই সঙ্গে কলেজ ছাত্রছাত্রীদের জন্যও নির্ধারিত করে দেওয়া হয়েছে উপস্থিতির হার। বলা হয়েছে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি থাকতেই হবে প্রত্যেক শিক্ষাবর্ষে। নইলে সেই ছাত্র বা ছাত্রীকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে না।

সরকারের উচ্চ শিক্ষা দফতর কলেজ শিক্ষাক্ষেত্রে এক দীর্ঘ বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে গতকাল। এই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৭ ঘণ্টা কলেজে থাকতেই হবে শিক্ষকদের। সরকারি এবং সরকারি অনুদান প্রাপ্ত কলেজের শিক্ষকদের ক্ষেত্রে এই নিয়ম লাগু হবে। এই বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে যে, “রাজ্যের সরকারি এবং সরকারি অনুদান প্রাপ্ত কলেজের শিক্ষকদের ৭ ঘণ্টা কলেজে থাকতেই হবে। প্রত্যেক কর্মদিনে কলেজের অধ্যক্ষকেও অন্তত ৭ ঘণ্টা কলেজে থাকতেই হবে।” তবে আংশিক সময়ের শিক্ষকদের জন্য এই নিয়ম কার্যকরী নয়। রোজনামচার ক্লাসের পর হাতে যে সময় থাকবে তা দিতে হবে কলেজের বাড়তি ক্লাস, গ্রন্থাগার, গবেষণায়।

এই নিয়ম লাগু হবে কলেজের অধ্যক্ষের জন্যও। ৭ ঘণ্টা কর্মসময় নির্ধারিত করা হয়েছে তাঁদের জন্যও।

অন্যদিকে,কলেজ ছাত্রছাত্রীদের জন্যও নির্ধারিত করে দেওয়া হয়েছে কলেজে উপস্থিতির হার। বলা হয়েছে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি থাকতেই হবে প্রত্যেক শিক্ষাবর্ষে। নইলে সেই ছাত্র বা ছাত্রীকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে না। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “কলেজের ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতির হার ৭৫ শতাংশ রাখতে হবে। প্রতি মাসেই ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতির হার পর্যবেক্ষণ করা হবে। যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীর উপস্থিতির হার ৭৫ শতাংশ থাকবে না তাদের সতর্ক বার্তা দেওয়া হবে কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফে। তাদের মোবাইল নম্বরে প্রতি মাসেই পৌঁছে যাবে উপস্থিতি সংক্রান্ত এই সতর্ক বার্তা।”