নিউজ ডেস্ক: মা-ছেলের গল্প নিয়ে তৈরি ছবি ‘অব্যক্ত’ যাচ্ছে চিত্রভারতী ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে। ২০১৮ সালে নির্মিত হয়েছিল ছবিটি। শর্ট ফিল্ম তৈরির অভিজ্ঞতা আগে থেকেই ছিল পরিচালক অর্জুন দত্তের। তবে ‘অব্যক্ত’ দিয়েই পরিচালক হিসেবে ফিচার ফিল্মে তাঁর হাতেখড়ি ঘটে তাঁর।

মুক্তির আগেই ছবির মুকুটে যোগ হচ্ছে একের পর এক নতুন পালক। এবার মুম্বইয়ে আয়োজিত ‘চিত্রভারতী, সেভেন্থ ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’-এ মনোনীত হল এই ছবি। দেখানো হবে আগামী ১৫মে।

খবরে স্বভাবতই খুশি গোটা টিম। এ ছবি বলবে মা, ছেলের গল্প। শোনাবে বিভিন্ন সম্পর্কের টানাপড়েনের কাহিনি। অর্জুন বললেন, “খুব ভাল লাগছে। রিলিজের প্ল্যান করছি এবার । দর্শকদের কথাই শেষ কথা। মা-ছেলের গল্প তো। আশা করি সকলের ভাল লাগবে।”

মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়। ছেলের চরিত্রে দেখা যাবে অনুভব কাঞ্জিলালকে। এছাড়া আদিল হোসেন, খেয়া চট্টোপাধ্যায়ের মতো শিল্পীর অভিনয় দেখার সুযোগ মিলবে এই ছবিতে। ছবির এমন নাম দেওয়ার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে অর্জুন আগেই বলেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, “আসলে অনেক সম্পর্কের কোন নাম হয় না। অনেক সময় ব্যক্ত হয়েও অব্যক্ত থেকে যায়। এ ছবিতে পাস্ট অ্যান্ড প্রেজেন্টতে ব্লেন্ড করা হয়েছে। সে কারণেই এমন নাম।”

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I