কলকাতা: গত কয়েক মাস ধরেই বারবার শিরোনামে নুসরত জাহান। সুন্দরী অভিনেত্রী থেকে বিপুল ভোটে জয়ী সাংসদ। ভোটের পর থেকেই নুসরত ছিলেন চর্চায়। তবে নিখিল জৈনকে বিয়ে করার পর থেকে অন্য বিতর্কে তিনি।

নিখিলকে বিয়ে করে তিনি কেন সিঁদুর পরছেন, কেন তাঁর গলায় মঙ্গলসূত্র, কেনই বা তিনি অষ্টমীতে অঞ্জলি দিলেন? প্রশ্ন উঠছে বারবার। সম্প্রতি হয়ে গেল করবা চৌথ। আর সেখানেও রীতি মেনে পালন করলেন নুসরত। সেই ছবি আগেই ভাইরাল হয়েছে। এবার সামনে এল নিখিলের পোস্ট করা একটি ছবি।

নিখিলের হাতে মেহেন্দি। আর সেই ছবিই পোস্ট করেছেন তিনি। একটি হাতে হিন্দি ও অপর হাতে উর্দুতে লেখা। নুসরতও হাত ভরে মেহেন্দি করেছেন। সেই ছবিও দিয়েছেন নিখিল। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘মেহেন্দি হ্যায় রচনেওয়ালি।’

অনেকেই কমেন্টে বক্সে লিখছেন যে কী লিখেছেন নিখিল? একটি হাতে হিন্দিতে লেখা ‘নয়না’। নুসরতকেই আদর করে নয়না বলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। অপর হাতে উর্দুতে লেখা রয়েছে ‘নুসরত’।
সম্প্রতি, দুর্গাপুজোয় অষ্টমীর সকালে শাঁখা সিঁদুর পরে স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে পৌঁছে যান সুরুচি সঙ্ঘের মণ্ডপে নুসরত। অঞ্জলিও দেন। ফের নতুন করে তাঁর বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেন কট্টরপন্থীরা। তাঁদের অভিযোগ নুসরত ইসলাম ধর্মের অবমাননা করছেন। এমনকী, তাঁরা নুসরতের নাম বদলেরও দাবি করেন।

এই মন্তব্যে গুরুত্ব না দিয়ে তৃণমূল সাংসদ বিজয়া দশমীতে ফের সিঁদুর খেলেন তিনি। বৃহস্পতিবার করবা চৌথেও স্বামী নিখিল জৈনের জন্য ব্রত রাখেন নুসরত। করবা চৌথের বেশ কিছু ছবি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে শেয়ার করেন তিনি। কোথাও দেখা যাচ্ছে নুসরতকে জল খাইয়ে দিচ্ছেন নিখিল। কোথাও আবার নিখিলকে খাইয়ে দিচ্ছেন নুসরত।

নুসরত অবশ্য আগেই বলেছেন, তিনি ঈশ্বরের বিশেষ সন্তান। বারবার তাঁর বিরুদ্ধে দেওয়া ফতোয়া কোনোদিনই তোয়াক্কা করেননি তিনি। তবে এই করবা চৌথ তাঁকে নতুন করে কোনও বিতর্কের মুখে ফেলে দেবে কিনা, তা অবশ্য জানা নেই।