কলকাতা: দুর্গা পুজো ২০১৯ বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। বিয়ের পর প্রথম পুজ একসঙ্গে কাটাচ্ছেন তারকা-সাংসদ নুসরত জাহান এবং তাঁর স্বামী নিখিল জৈন। মহাষ্টমীর সকালে সুরুচি সংঘের মণ্ডপে উপস্থিত হয়েছিলেন এনজে দম্পতি। নিয়ম মেনে অঞ্জলি দিয়ে এদিন দু’জনকেই দেখা গেল ঢাকে কাঠি দিয়ে পুজোয় মেতে উঠতে।

অষ্টমীতে স্বামী নিখিলকে সঙ্গে নিয়ে প্যান্ডেলে জমিয়ে ঢাক বাজালেন নুসরত। পুজোর আনন্দে মাতলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। বৃষ্টির আশঙ্কাকে উড়িয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে আনন্দে মাততে রাস্তায় নেমেছেন সেলিব্রিটিরাও। রবিবার অষ্টমীতে সুরুচি সঙ্ঘের প্যান্ডেলে হাজির হয়েছিলেন নুসরত জাহান। স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে জমিয়ে ঢাক বাজালেন নুসরত। তাঁদের সঙ্গে পাল্লা দিলেন তৃণমূল নেতা অরূপ বিশ্বাসও।

এদিন আরতির সময়ে হাজির হয়েছিলেন সুরুচি সঙ্ঘের প্যান্ডেল। লাল শাড়ি পরা নুসরত নাচলেন কয়েকজন মহিলার সঙ্গেও। স্বামী সঙ্গে নিজের ছবি পোস্ট করে ইনস্টাগ্রামে নুসরত লিখেছেন, ‘অষ্টমীতে সুরুচি সঙ্ঘে। সঙ্গে হাবি নিখিল ও দাদা অরূপ বিশ্বাস।’

নুসরত বলেন, “নিখিলকে এই সব বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে আস্তে আস্তে পরিচয় করাবো। সুরুচি সংঘের পুজোয় তাই ওকে নিয়ে অঞ্জলি দিলাম। আমি প্রতিবছর না খেয়ে অঞ্জলি দিই।” স্বামীর সঙ্গে অঞ্জলি দিতে গিয়ে মা দুর্গার কাছ থেকে কী চাইলেন নুসরত?

তিনি বলেন, “মানুষ শান্তিতে জীবন কাটাক এটাই চাই। দেশের টালমাটাল পরিস্থিতি যেন শান্ত হয়ে যায়।” অঞ্জলি দেওয়ার পর ঢাকও বাজালেন তাঁরা। আপাতত কোনও শুটিংয়ের ব্যস্ততা নেই নুসরতের। তাই বিয়ের পর প্রথম পুজো এক্কেবারে পরিবারের সঙ্গে কাটাচ্ছেন তিনি।

সুরুচিতেই অঞ্জলি দেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় এবং সুরকার জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ও। অন্যদিকে, অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকারও এদিন অঞ্জলি দেন। ছেলে সহজকে সঙ্গে নিয়ে বাঘাযতীন তরুণ সংঘে অঞ্জলি দেন তিনি। লালপাড় সাদা শাড়িতে এক্কেবারে ট্র্যাডিশন্যাল লুকে ধরা দেন প্রিয়াঙ্কা। অঞ্জলি শেষে মা-ছেলে সেলফিও তোলেন।