কলকাতা: ফের কট্টরপন্থীদের নিশানায় অভিনেত্রী তথা বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। কিছুদিন আগেই একেবারে নববিবাহিত কনের বেশে ছবি পোস্ট করেছিলেন নুসরত। আর তার পরেই একের পরে এক আক্রমণাত্বক মন্তব্য ছুড়ে দেওয়া হয়েছে বসিরহাটের সাংসদের বিরুদ্ধে।

এই মুহূর্তে ব্রাত্য বসু পরিচালিত ছবি ডিকশনারি-র শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত নুসরত। সেই ছবির শ্যুটিং-এর জন্যই বোলপুর গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকেই একটি ছবি পোস্ট করে বিতর্কে পড়েছেন অভিনেত্রী। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি লাল টুকটুকে শাড়ি পরে রয়েছেন। চোখে কাজল, কপালে লাল টিপ, সিঁথিতে সিঁদুর আর গলায় সোনার হার। ঠিক যেন নববিহাহিত বঙ্গনারী। এই ছবি দেখেই রে-রে করে উঠেছে নুসরত।

এই ছবির কমেন্টে কেউ লিখেছেন, আপনি কি মুসলিম! কেউ আবার লিখছেন, মুসলিম হয়ে এমন সাজ! আর একজন ব্যঙ্গের সুরে বলেছেন, মুসলিম মেয়েদেরও এমন সুন্দর লাগে হিন্দু সাজে তা জানতাম না!

তবে এই প্রথম নয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার কট্টরপন্থীদের নিশানায় পড়েছেন নুসরত। নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ের পরে সিঁথিতে সিঁদুর ও গলায় মঙ্গলসূত্র পরে লোকসভায় গিয়ে শপথ নিয়েছিলেন। সেই সময়েও মৌলবাদীরা বাক্যবাণে বিঁধেছিলেন তাঁকে। তবে সে সবে কান দেননি অভিনেত্রী।

এর পরে ইস্কনের রথযাত্রায়ও অংশ নিয়েছিলেন তিনি। দুর্গাপুজোতেও অষ্টমীর দিন অঞ্জলি দিয়েছিলেন স্বামীকে নিয়ে। তা নিয়েও নুসরতকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মৌলবাদীরা। তবে নুসরত বারবার স্পষ্ট করে বলেছেন, তিনি ইসলাম ধর্ম ছাড়বেন না কখনওই। কিন্তু অন্যান্য ধর্ম ও সংস্কৃতির উপরেও তাঁর শ্রদ্ধা রয়েছে। আর তাই এই অন্যান্য ধর্মের উৎসবেও তিনি সামিল হন।

প্রসঙ্গত, এই ছবিতে একেবারে নতুন জুটিকে দেখতে পাবে দর্শক। নুসরতের বিপরীতে দেখা যাবে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও আবির চট্টোপাধ্যায়কে। অতএব এই ছবিতে যে নতুন চমক থাকবে তা বলাই বাহুল্য।