কলকাতা: বিদেশে হানিমুনে ব্যস্ত নুসরত। মরিশাসে রয়েছেন তিনি। সেখান থেকে ছবিও পোস্ট করছেন অনেক। তার আগেই কলকাতায় তিনি পালন করলেন ‘সিন্ধারা দুজ’। বিয়ের পর প্রথমবার এই রীতি পালন করলেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই পোস্ট করেছেন সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান। তাঁর পরণে লাল শাড়ি আর ট্র্যাডিশনাল গয়না। ফুলে সাজানো গোটা বাড়ি। সেখানেই দু’জনে সেলিব্রেট করছেন এই অনুষ্ঠান।

শ্রাবণ মাসের শুক্লপক্ষের দ্বিতীয়ায় ‘সিন্ধারা দুজ’ পালন করা হয়। এই সময় বিবাহিত মহিলারা তাঁদের স্বামীর মঙ্গলকামনায় শিব পুজো করে থাকেন। আবার অবিবাহিত মহিলারাও ভালো স্বামী পাওয়ার আশায় উপোস করে থাকেন।

এই দিনে সাধারণত, বিবাহিত ও অবিবাহিত মহিলারা হাতে মেহেন্দি পরেন। শাড়ি, গয়না পরে সাজেন সাবেকি ধাঁচে। স্বমী-স্ত্রী একে অপরকে উপহার দেন। মহিলাদের চুড়ি উপহার দেওয়ার রীতি আছে। ‘সিন্ধারা দুজ’ ‘হরিয়ালি টিজ’ বলেও পরিচিত। শ্রাবণ মাসে অবাঙালি হিন্দুদের মধ্যে এই ‘সিন্ধারা তিজ’ পালনের রীতি রয়েছে।

নুসরতের মতোই ‘সিন্ধারা দুজ’-এর রীতি মনেই বাড়িতে শিব পূজোর আয়োজন করতে দেখা গেছে অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কেও।

পুরাণ অনুযায়ী, তপস্যা করে এই বিশেষ দিনেই নাকি শিবকে স্বামী হিসাবে পেয়েছিলেন পার্বতী। সেকথা মাথায় রেখেই এখনও এই ‘সিন্ধারা দুজ’-এর পুজো করেন মহিলারা। সন্ধেয় বাড়িতে পার্বতী মাতার পুজো করতে হয়। ধূপ-প্রদীপে ঠাকুরঘর সাজান মহিলারা।

এদিকে, হানিমুনে গিয়ে মরিশাঁসে সাংগরিলা হোটেলে উঠেছেন তাঁরা। ঘর থেকেই সোজা দেখা যাচ্ছে সমুদ্র। নিখিলের পোস্ট করা একটি ছবিতেই দেখা গিয়েছে সেই দৃশ্য। সমুদ্রের ধারে রোমান্টিক ডিনারের জায়গা থেকেও সেলফি পোস্ট করেছেন তাঁরা। নুসরত বিভিন্ন পোজে ছবি পোস্ট করেছেন। কখনও সমুদ্রের ধারে, কখনও বাগানে।

গত ১৯ জুন মাসেই তুরস্কের বোদরুম শহরে ঘটা করে আয়োজন করা হয়েছিল নুসরত-নিখেলের ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের অনুষ্ঠান।