ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বোলপুর: নিয়ম অনুযায়ী সঠিক রঙের পোশাক পরে না আসায় খুলে নেওয়া হয়েছে ছাত্রীদের প্যান্ট। এই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে শান্তিনিকেতন থানার অন্তর্গত বেসরকারি একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার এই ঘটনায় রিপোর্ট তলব করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “যা হয়েছে তা খুব খারাপ। গোটা বিষয়ের খোঁজ নেব।” অন্যদিকে এই ঘটনা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশনও। গোটা ঘটনা জানতে চেয়ে বীরভূমের জেলাশাসককে চিঠি দিচ্ছে কমিশন।

শান্তিনিকেতনের মকরমপুরের ওই বেসরকারি স্কুলের নিয়ম অনুযায়ী, প্রত্যেক দিন আলাদা আলাদা রঙের ইউনিফর্ম পরতে হয় । এই নিয়ম অনুযায়ী সোমবার যে রঙের ইউনিফর্ম পরার কথা তা পরেনি প্রাইমারি সেকশনের জনা তিরিশের ছাত্রী। অভিযোগ, সেই কারণে স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই ছাত্রীদের লেগিন্স খুলে নেয়। শুধু তাই নয়, এদিন এই অবস্থাতেই ওই ছাত্রীদের ক্লাস করতে হয় বলে অভিযোগ। তারপর সেভাবেই বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। স্কুল কর্তৃপক্ষ দাবি করে, ওই পড়ুয়ারা নাকি স্কুলের ইউনিফর্ম পরে আসেনি। এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে বীরভূমের বোলপুরে। প্রিন্সিপ্যালকে সরানোর দাবিতে আজ বিক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা।

সোমবারই শান্তিনিকেতন থানায় লিখিত অভিযোগ করেন পড়ুয়াদের অভিভাবকরা। এরপর বিষয়টি ‘মিটমাট’ করতে শেষে শান্তিনিকেতন থানায় গিয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন প্রিন্সিপাল। তবে মঙ্গলবার সকাল থেকে ফের স্কুলে এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন অভিভাবকরা। এই ঘটনার জন্য প্রিন্সিপ্যালকে সরানোর দাবি জানান তাঁরা। চাপে পড়ে শেষ পর্যন্ত স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের ভুল স্বীকার করে।