একেই বলে লেডি গাগা৷ সপ্তাহে সপ্তাহে চমক না দিলে গাগা ম্যাডাম নিশ্চিন্তে ঘুমতেই পারেন না ৷ তাই তো পার্টি হোক বা নিজের ভিডিও অ্যালবাম৷ সবেতেই লেডি গাগা ফিরে আসেন নিজের অবতারে৷ ঘটনাটা ঘটলও ঠিক এমন৷ প্রায় ছ’মাস ধরে শ্যুট করার পর শেষমেশ প্রকাশ্যে এল লেডি গাগার নতুন ভিডিও ‘গাই’৷ আর গাইয়ের হাত ধরেই ফের শিরোনামে লেডি গাগা৷ বরং বলা ভাল ফের শিরোনামে নগ্ন লেডি গাগা৷

গপ্পোটা হল, গাগার নতুন ভিডিও গাই নিয়ে আপাতত মার্কিন মুলুকে তুমুল উত্তেজনা৷ আর উত্তেজনার কারণ একটাই৷ গাগা এই ছবিতে বেশিরভাগ সময়ই দেখা গিয়েছে একেবারে নগ্ন রূপে৷ তবে শুধু নগ্ন নয়, ভিডিওতে নগ্ন পুরুষের সঙ্গে রতিক্রিয়াও করতে দেখা গিয়েছে লেডি গাগাকে৷ এই রতিক্রিয়া নিয়েই আপাতত চাঞ্বল্য বিশ্ব পপমহলে৷

লেডি গাগার অ্যালবাম প্রথম থেকেই বেশ বির্তকিত৷ প্রথম অ্যালবাম ‘অ্যাপালস’-এ নিজের বক্ষে ছুঁড়ি ফুটিয়ে সমালোচনার আগুনে বারুদ ঢেলেছিলেন লেডি৷ তার উপর গাগার উৎকট ফ্যাশন বার বার চমকে দেয় বিশ্বকে৷ লেডি গাগার মতে, ‘কালচারাল শক দিতে আমার খুব ভাল লাগে৷ তাই জন্যই ভিডিওতে বার বার এরকম অঙ্গ ভঙ্গি৷ তবে ইচ্ছে করে নেয়৷ গানের সঙ্গে পুরো ব্যাপারটা যাচ্ছে বলেই এই ধরণের আচরণ৷’

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.