কলকাতা: নজির গড়ল কলকাতার এনএসএইচএম স্কুল অফ মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন। পড়ুয়াদের প্র্যাকটিকাল অভিজ্ঞতার জন্য একটি ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যান লঞ্চ করা হল এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। এনএসএইচএম- ই প্রথম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেখানে উন্নত প্রযুক্তির ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যানের সঙ্গে পরিচিত হবে পড়ুয়ারা।

এই ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যানে রয়েছে চারটি Nos 4K ক্যামকর্ডার্স, আটটি Input 4K Switcher,4KHDD Recorder। এছাড়াও রয়েছে ১২ ট্র্যাক ডিজিটাল অডিও কনসোল, কর্ডলেন মাইক্রোফোন, অ্যাপল ম্যাক সিস্টেম ইত্যাদি।

এনএসএইচএম-এর চেয়ারম্যান ট্রাস্টি দিলীপ সিং মেহেতা এই প্রসঙ্গে বলেন, “এনএসএইচএম স্কুল অফ মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশনের এটি একটি অসাধারণ পদক্ষেপ। এই ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যান আনার ফলে পড়ুয়ারা প্রত্যক্ষ ভাবে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবে। মানুষের জীবনযাপনের উপরে সংবাদমাধ্যমের বড় ভূমিকা থাকে। এই ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যানের ফলে পড়ুয়াদের প্রথমবার বাস্তবে যেভাবে মিডিয়া নেটওয়ার্কে কাজ হয় সেই অভিজ্ঞতা হবে। “

এনএসএইচএম নলেজ ক্যাম্পাস গ্রুপের প্রধান মেন্টর ও ম্যানেজিং ট্রাস্টি সিসিল অ্যান্টনিও বলছেন, “এবার আমাদের পড়ুয়া ও শিক্ষক-শিক্ষিকারা বিভিন্ন লোকেশন থেকে আউটডোর শ্যুটিং, অনলাইন এডিট, খবরের কভারেজ ইত্যাদির করতে পারবেন।”

এনএসএইচএম স্কুল অফ মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন-এর ডিরেক্টর ফিরোজ মহম্মদ বলছেন, “প্র্যাকটিকাল জ্ঞান ও ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ করার অভিজ্ঞতা হবে পড়ুয়াদের। লাইভ স্ট্রিমিং কী ভাবে হয় সেই ধারণা হবে তাদের।”

সিএসআইআর এর প্রাক্তন বিজ্ঞানী এবং এনএসএইচএম-এর স্ট্র্যাটেজি অ্যান্ড ইমপ্যাক্টের প্রধান ডক্টর কৃষ্ণেন্দু সরকার বলছেন, “চার দেওয়ালের গণ্ডি ভেঙে পড়ুয়ারা তাঁদের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারবে।”

অধ্যাপক দেবাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে, “বিশেষ করে সাংবাদিকতার পড়ুয়াদের লাইভ প্রজেক্ট করতে এই ভিডিও প্রোডাকশন ভ্যান সাহায্য করবে। সাম্প্রতিক কালে যেভাবে মিডিয়া হাউজে কাজ হয় সেই অভিজ্ঞতাও পড়ুয়ারা প্রজেক্টের মাধ্যমে অর্জন করতে পারবে। ইন্ডাস্ট্রিতে যাতে তাদের কাজ পেশ করা যায় আমরা সেই পরিকল্পনাও করছি।”

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।