নাসিকঃ   দীর্ঘ লড়াইয়ের পর অবশেষে বাঁধা কাটল। ভক্তিভরে এবার ত্রিম্বকেশ্বর মন্দিরে অধিষ্ঠিত শিবলিঙ্গে পুজোর ফুল দিতে পারবেন ভক্তরা। ‘শ্রী ত্রিম্ববকেশ্বর দেবস্থান’ দেশের ১২ টি জ্যোতির্লিঙ্গের মধ্যে একটি। কথিত আছে, মন্দিরে অধিষ্ঠিত শিবলিঙ্গে আপনি ফুল চড়িয়ে যা চাইবেন মন থেকে তাই পাবেন। আর এই কথা রীতিমত ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র। আর সেই মতো প্রতিবছর লক্ষ ভক্তের সমাগম ঘটে এই মন্দিরে। মহাদেবকে সবাই ফুল দিয়ে নিজের মনস্কামনা জানাতে চান। কিন্তু গত তিনবছর সেই রীতিতেই ছেদ পড়েছে।

তিন বছর আগে এই মন্দিরে ভক্তদের পুজোর ফুল দেওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেন মন্দির কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সাম্প্রতিক কালে এই নিষোধাজ্ঞা তুলে দেওয়ার বিষয়ে আওয়াজ তোলেন মন্দির ট্রাস্টির সদস্য ললিত শিন্দে। তাঁর দীর্ঘ লড়াইয়ের ইতি! অবশেষে তাঁর দাবি মেনে ভক্তদের ফুল দেওয়ার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.