লন্ডন: কেরিয়ারের ৫ নম্বর উইম্বলডন খেতাব জেতার পর নিজের পরবর্তী লক্ষ্য সম্পর্কে খোলামেলা মন্তব্য করলেন বিশ্বের এক নম্বর তারকা নোভাক জকোভিচ৷ সার্বিয়ান তারকা স্পষ্ট জানান যে, টেনিসের দু’টি সর্বকালীন রেকর্ড নিজের নামে করতে চান তিনি৷ কাকতলীয়ভাবে দু’টি ক্ষেত্রেই তিনি ভাঙতে চান কিংবদন্তি রজার ফেডেরারের নজির৷

প্রথমত, সব থেকে বেশি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি জেতার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যেতে চান তিনি৷ দ্বিতীয়ত, নোভাকের নজর রয়েছে সব থেকে বেশি দিন বিশ্বব়্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকার নজিরের দিকেও৷ দু’টি রেকর্ডই এই মুহূর্তে রজারের পকেটে রয়েছে৷

রজার ফেডেরার তাঁর দীর্ঘ কেরিয়ারে এখনও পর্যন্ত ২০টি গ্র্যান্ড স্লাম ট্রফি জিতেছেন৷ সব থেকে বেশি গ্র্যান্ড স্লাম ট্রপি রয়েছে সুইস তারকার দখলেই৷ ফেডেক্স ৬ বার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ১ বার ফরাসি ওপেন, ৮ বার উইম্বলডন ও ৫ বার যুক্তরাষ্ট্র ওপেন জিতেছেন৷ এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রাফায়েল নাদাল৷ তাঁব ক্যাবিনেটে মেজর ট্রফির সংখ্যা ১৮টি৷ স্প্যানিশ তারকা ১ বার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ১২ বার ফরাসি ওপেন, ২ বার উইম্বলডন ও ৩ বার ইউএস ওপেন জিতেছেন৷

উইম্বলডন জেতার পর জকোভিচের গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফির সংখ্যা দাঁড়াল ১৬টি৷ তিনি ৭ বার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ১ বার ফরাসি ওপেন, ৫ বার উইম্বলডন ও ৩ বার যুক্তরাষ্ট্র ওপেন জিতেছেন৷ সুতরাং, নাদালকে ছুঁতে আরও ২টি এবং ফেডেরারকে ছুঁতে আরও ৪টি গ্র্যান্ড স্লাম ট্রফি জিততে হবে জকোভিচকে৷

অন্যদিকে ফেডেরার সব থেকে বেশি মোট ৩১০ সপ্তাহ এটিপি ব়্যাংকিংয়ের এক নম্বরে ছিলেন৷ জকোভিচ সেখানে ২৬১ সপ্তাহ বিশ্বব়্যাংকিংয়ের শীর্ষে রয়েছেন৷ জোকার এই তালিকার পঞ্চম স্থানে রয়েছেন৷ মাঝের তিনটি জায়গা দখল করে রেখেছেন পিট সাম্প্রাস (২৮৬), ইভান লেন্ডল (২৭০) ও জিমি কনর্স (২৬৮)৷

নোভাক মনে করেন, টেনিসের এই দু’টি সর্বকালীন রেকর্ড তিনি ভেঙে দিতে পারেন৷ তিনি বলেন, ‘এই দু’টি বিষয় অবশ্যই আমার নজরে রয়েছে৷ ইতিহাসে কোছ থাকে সবার৷ কেরিয়ারের এই পর্যায়ে নিঃসন্দেহে গ্র্যান্ড স্লাম ট্রফিই আমার কাছে অগ্রাধিকার পায়৷ আর এক নম্বর ব়্যাংকিংয়ের বিষয়টাও খুব একটা দূরে নেই৷ আমার বিশ্বাস এই দু’টি রেকর্ডই আমি ভেঙে দিতে পারি৷ তবে টেনিসে কোনও কিছুই নিশ্চিত নয়৷ দু’টি রেকর্ড গড়তে হলে বহু প্রতিবন্ধকতা টপকাতে হবে আমাকে৷’