কলকাতা: রাষ্ট্রায়ত্ত কয়লা শিল্পে ২৪ সেপ্টেম্বর প্রতীক ধর্মঘট ডেকেছে শ্রমিকেরা ৷ এজন্য সোমবার সিটু অনুমোদিত ভারতের কোলিয়ারি মজদুর সভা (সিএমএসআই) এদিন এককভাবে সর্বত্র ধর্মঘটের নোটিস দেয়। কয়লা শিল্পের সঙ্গে শ্রমিক ফেডারেশনগুলি একযোগে প্রতীক ধর্মঘটের আহ্বান জানিয়েছে। তবে ধর্মঘটের আহ্বানকারী অন্যান্য শ্রমিক সংগঠনগুলিও আলাদা আলাদাভাবে করে ধর্মঘটের নোটিস দেবে বলে জানা গিয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা দেশের কয়লা ভাণ্ডার বিদেশি পুঁজির হাতে তুলে দেবার উদ্যোগ নিয়েছে। তারফলে প্রাকৃতিক সম্পদ কয়লা ক্ষেত্রে ১০০ শতাংশ অবাধ বিদেশি বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অটোমেটিক রুটে এফডিআইকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।তারই প্রতিবাদে এই ধর্মঘটের ডাক৷

ধর্মঘটের নোটিস দিয়ে দাবি জানানো হয়েছে, অবিলম্বে যেন এফডিআই-র সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হয়।কোল ইন্ডিয়া থেকে তার বিভিন্ন অধীনস্থ সংস্থাগুলিকে বিচ্ছিন্ন করার উদ্যোগ নিয়েছে বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার। দাবি করা হয়েছে, সিআইএল থেকে কোনও অধীনস্ত সংস্থাকে বিচ্ছিন্ন করতে দেওয়া হবে না। বরং সিআইএল-এর অধীন সংস্থাগুলিকে মিলিয়ে একটি মাত্র সংস্থা করা হোক।

অন্যদিকে প্রতিবাদের কারণ হল স্থায়ী শ্রমিকের সংখ্যা দ্রুত কমছে এবং বেড়ে চলেছে ঠিকাশ্রমিকের সংখ্যা। ঠিকা শ্রমিকদের কোল ইন্ডিয়ার শ্রমিক হিসাবে গণ্য করার দাবি উঠেছে। দেশের কয়লাঞ্চলে ধর্মঘটের সমর্থনে প্রচার চালান হচ্ছে। এলাকার মানুষের কাছেও শ্রমিকরা বোঝানোর চেষ্টা করছে- কেন্দ্রীয় সরকারের এই সর্বানাশা নীতি শুধু শ্রমিক বিরোধী নয় তা জনবিরোধী। দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত কয়লা শিল্পের ২ লক্ষ ৬০ হাজার স্থায়ী শ্রমিক এবং ২ লক্ষ ঠিকাশ্রমিক ২৪সেপ্টেম্বর এই ধর্মঘটে সামিল হবেন৷