নয়াদিল্লি: দীর্ঘ বিতর্ক ও অপেক্ষা পর ভারতের হাতে এসেছে প্রথম রাফায়েল। ফ্রান্সে গিয়ে একেবার সনাতন রীতিতে পূজা করে সেই রাফায়েল গ্রহণ করেছেন খোদ প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। নারকেল ফাটিয়ে, চাকার তলায় লেবু দিয়ে পুজো করেছেন রাফায়েলের।

সেই রাফায়েল পূজাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই দেশ জুড়ে তীব্র আলোচনা। কেউ কেউ কটাক্ষ করেছেন রাফায়েল পূজাকে। এবার সেই রাফায়েল পুজো নিয়ে মন্তব্য করলেন পাক সেনার মুখপাত্র আসিফ গফুর।

কটাক্ষ করার পাশাপাশি ভারতের বিরুদ্ধে প্রচ্ছন্ন সতর্কাবার্তাও ছুঁড়ে দিয়েছেন তিনি। যদিও ভারত-বিরোধী ট্যুইট নতুন নয় আসিফ গফুরের। বিভিন্ন ইস্যুতে তাঁর এসব মন্তব্য বারবার দেখা যায় ট্যুইটারে। এবার সশ্ত্র পূজা নিয়ে মুখ খুললেন।

বৃহস্পতিবার এক ট্যুইটে প্রথমে তিনি লিখেছেন, ‘রাফায়েল পূজা একটি ধর্মীয় রীতি। এই রীতি নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। ধর্মীয় রীতিকে সম্মান জানানো উচিৎ।’ পরের লাইনেই ভারতের বিরুদ্ধে প্রচ্ছন্ন হুমকি। লিখেছেন, ‘মনে রাখুন, মেশিন একাই সবকিছু সামলাতে পারে না। মেশিনটা যে চালাচ্ছে তারাই আসল।’ এই বলে পাক বিমানবাহিনীর প্রশংসা করেছেন তিনি। লিখেছেন পাক বিমানবাহিনীর জওয়ানদের জন্য গর্বিত।

অত্যাধুনিক রাফায়েল আগামিদিনে ভারতের প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে সবথেকে বড় গেম চেঞ্জার। এতে থাকবে ১৫০ কিলোমিটার রেঞ্জের মেটেওর এয়ার টু এয়ার মিসাইল। আর পাকিস্তানের F-16 কে টেক্কা দিতে এটাই সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই সেই হতাশাতেই হয়ত ট্যুইটারে এভাবে আক্রমণ করছেন গফুর। দেশের প্রাক্তন বায়ুসেনা আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, ‘ভারতীয় বায়ুসেনায় রাফায়েল একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। রাফায়েল বিশ্বের অন্যতম দুর্ধর্ষ ফাইটার জেট। যে কোনও ধরনের হামলায় ব্যবহার করা যেতে পারে এটি।’

দশেরার দিন রাফায়েল গ্রহণ করেছে ভারত। নারকেল ফাটানো হয় রাফায়েলের উপর। এয়ারক্রাফটের গায়ে লেখা হয় ‘ওম।’ যেভাবে কোনও ভালো কাজ শুরু করার রীতি রয়েছে ভারতে, সেটাই পালন করেন রাজনাথ। বিজয়া দশমীতে দাসোঁর কারখানায় পুজো করেন রাজনাথ সিং।

ফ্রান্সের সঙ্গে ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কিনছে ভারত। প্রথম রাফাল হাতে পেল নয়াদিল্লি। সনাতনী রীতিতে বিজয়া দশমীর দিন অস্ত্র পুজো করার রীতি রয়েছে। সেই রীতি মেনে রাফালের পুজো করেন রাজনাথ।

চাকার তলায় রাখা হয়েছিল লেবু। প্রতিরক্ষামন্ত্রী সেখানে গিয়ে বলেন, ‘ভারতীয় উপমহাদেশে রাফাল শান্তি ও নিরাপত্তা বৃদ্ধি করবে বলে আশা করি।’ তিন দিনের সফরে ফ্রান্সে গিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। এদিন এই চুক্তির প্রাথমিক পর্ব সফল ভাবে মেটার পর দাসল্ট এভিয়েশনের পক্ষ থেকে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়। দাসল্ট এভিয়েশনের সিইও জানান এই দিনটি ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য সাফল্যের দিন। ভারতের হাতে রাফায়েল তুলে দিতে পেরে গর্বিত দাসল্ট।