প্রতীকি ছবি

কলকাতা: রাজ্যের মাদ্রাসায় শুধু মুসলমানরাই নয়, পড়াশোনা করেন অনেক হিন্দু ছাত্রছাত্রীও৷ তথ্য দিয়েছেন, বিধানসভায় বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী৷ গোটা দেশে সন্ত্রাস ছড়ানোর জন্য বাংলা-সহ বিভিন্ন রাজ্যের মাদ্রাসাকে ব্যবহার করা হচ্ছে, বক্তব্য নরেন্দ্র মোদী সরকারের৷ মোদী সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিশন রেড্ডি বলেছেন, গোটা দেশের সন্ত্রাস ছড়ানোর জন্য দায়ী বাংলা সহ বিভিন্ন রাজ্যের মাদ্রাসা৷ বুধবার রাজ্য বিধানসভায় এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই এই মন্তব্য করেছে সুজন৷

মঙ্গলবার সংসদে রাজ্যের দুই সাংসদ খগেন মুর্মু এবং সুকান্ত মজুমদারের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানান, গোয়েন্দারা তথ্য দিয়েছে, বর্ধমান এবং মুর্শিদাবাদের কিছু মাদ্রাসায় ছাত্রদের মগজঝোলাই করছে জেএমবি৷ ছাত্রদের জিহাদি মন্ত্রে দীক্ষিত করা হচ্ছে৷ রাজ্য সরকারকে সেই বিষয়ে জানানোও হয়েছে৷ বুধবার সুজন দাবি করেছেন, কেন্দ্রীয় সরকার মাদ্রাসাগুলিকে ‘লক্ষ্য’ করে যা বলছেন তা স্পষ্ট নয়৷ কোন মাদ্রাসা অভিযুক্ত তা বিশেষভাবে বলে দেওয়া উচিত৷

প্রশ্ন ওঠে, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য যখন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, তখনও তিনি রাজ্যের মাদ্রাসাগুলির উপর নজরদারি চালিয়েছিলেন৷ সুজনের বক্তব্য, নির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ওই মাদ্রাসাগুলিতে নজরদারি চালানো হয়েছিল৷ কিন্তু সব মাদ্রাসাকে বলা হয়নি৷ কিন্তু মোদী সরকারের মাদ্রাসা সম্পর্কে এই ধারণা স্বচ্ছ নয়৷