স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : আজ শনি ও আগামী ২৪ ঘণ্টায় অর্থাৎ রবিবার বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গে। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আক মাসের বেশি সময় ধরে বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত উত্তরবঙ্গে আপাতত বৃষ্টির বিরতি চলছে তা বলা যেতে পারে। তবে মাঝে মাঝে কোনও কোনও অঞ্চলে বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

চলতি সপ্তাহে একদম বৃষ্টি প্রায় বন্ধ হয়ে গেলেও শুক্রবার থেকেই বৃষ্টি অল্প বেড়েছে উত্তরবঙ্গে। আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে দু-এক পশলা বৃষ্টির পূর্বাভাস মিলছে। আজ শনিবার ভারী বৃষ্টি হতে পারে দার্জিলিং, কালিম্পং ও জলপাইগুড়িতে। রবিবার আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও জলপাইগুড়িতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। দু-এক জায়গায় ২০০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে।

এদিকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায়। শুক্রবার সকাল থেকে আর বৃষ্টি হয়নি। রোদ ছিল না। মেঘে ঢাকা ছিল আকাশ। তবে বৃষ্টিও হয়নি তেমনভাবে। আগামী রবিবার বঙ্গোপসাগরে নতুন করে তৈরি হতে পারে নিম্নচাপ। আর তার ফলে ফের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ শক্তি বাড়িয়ে ওডিশা-বাংলার স্থলভাগের উপর সরে আসে বুধবার। আর তার প্রভাবে বেশি বৃষ্টি হয় রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরে পূর্বাভাস দিয়ে জানিয়েছে, বৃষ্টি বাড়বে রবিবার থেকে। বাংলা-ওডিশা লাগোয়া বঙ্গোপসাগরে ফের একটি নিম্নচাপ সৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। আপাতত তাঁরা যা দেখতে পাচ্ছেন সেই অনুযায়ী, এই নিম্নচাপের প্রভাবে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে ওডিশায়। তুলনায় কম প্রভাব পড়বে বাংলায়। তবে খুব কম প্রভাব পড়বে এমনটাও নয়। রবিবার ওডিশা লাগোয়া দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম থেকে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এরই মধ্যে একদিকে ডিভিসি, আরেকদিকে গালুডির জল নিয়ে দুশ্চিন্তা থাকবে। এই বৃষ্টিতে কলকাতা, শহরতলির অনেক জায়গায় জল জমতে পারে।

হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, বুধবার পর্যন্ত ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। এছাড়া এই নিম্নচাপের প্রভাবে ওড়িশা সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টি হবে। রবিবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। সোমবার ওড়িশা সংলগ্ন জেলা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা