ওয়াশিংটনঃ  নতুন করে আশঙ্কার কালো মেঘ জমতে শুরু করেছে বিশ্বের আকাশে। একদিকে ইরান-আমেরিকা ইস্যুতে উত্তপ্ত গোটা বিশ্ব তখন চাপ বাড়াচ্ছে উত্তর কোরিয়াও। নতুন করে রণসজ্জায় কিমের দেশ। সমস্ত নিষেধাজ্ঞা উড়িয়ে একের পর এক মিসাইল পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার। আগামিদিনে আরও মিসাইল পরীক্ষার হুঁশিয়ারি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। এই অবস্থায় নতুন করে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

নতুন করে মার্কিন সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল রবার্ট অ্যাশলে বলেছেন, তার দেশের গোয়েন্দারা বিশ্বাস করে না যে উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের জন্য প্রস্তুত আছে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের মধ্যে চিঠি বিনিময়ের দুই দিনের মাথায় এই মন্তব্য করলেন জেনারেল অ্যাশলে।

সোমবার মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জেনারেল অ্যাশলে বলেন, “আমেরিকার গোয়েন্দাদের মধ্যে এখনও পর্যালোচনা চলছে যে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এখনও তার দেশকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করতে প্রস্তুত নন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষ থেকে কিম জং উনের কাছে চিঠি দেওয়ার ফলে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা পুনরায় শুরু হওয়ার ব্যাপারে মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও আশাবাদ ব্যক্ত করার কয়েক ঘন্টার পর দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার একজন আধিকারিকের পক্ষ থেকে এহেন বক্তব্য এল।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে দুই দেশের শীর্ষ নেতার দ্বিতীয় এবং সর্বশেষ বৈঠক কোনও ফলাফল ছাড়াই শেষ হয়। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ গত রবিবার জানিয়েছ, কিম ট্রাম্পের পাঠানোর চিঠিকে দারুণ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন তিনি। চিঠির আকর্ষণীয় বিষয়গুলো নিয়ে কিম গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করবেন।