সিওল: দ্রুত পরমাণু পরীক্ষাকেন্দ্র বন্ধ করতে পারে উত্তর কোরিয়া সরকার৷ সে দেশের প্রধান কিম জং উন তেমনই পদক্ষেপ নিতে চলেছেন৷ এমনই জানাল দক্ষিণ কোরিয়ার সরকার৷ বিবিসি-র খবরে বলা হয়েছে, আগামী মে মাসেই পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে কিমের দেশ বড়সড় সিদ্ধান্তের কথা জানাবে৷

রবিবার দক্ষিণ কোরিয়ার এক সরকারি মুখপাত্র বলেছেন, পরমাণু বোমা পরীক্ষাকেন্দ্র বন্ধ করার সময় ভিনদেশি প্রতিনিধিরা থাকবেন উত্তর কোরিয়ায়৷ সেক্ষেত্রে কিম জংয়ের নির্দেশে দক্ষিণ কোরিয়ার বিশেষজ্ঞ ও আমেরিকান প্রতিনিধিদের প্রবেশের অনুমতিও দেওয়া হতে পারে৷

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে যুযুধান দুই রাষ্ট্র উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানরা বৈঠকে বসেঠন৷ কোরীয় যুদ্ধের পর এই প্রথম কোনও উত্তর কোরিয়ার শাসক দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের মুখোমুখি হলেন৷ দুই রাষ্ট্রের নিরপেক্ষ অঞ্চল পানমুনজমে হওয়া বৈঠকে পরমাণু কর্মসূচি হ্রাস করার বিষয়ে মতামত দিয়েছেন উত্তর সর্বময় শাসক কিম জং উন ও দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন৷

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি ঘিরে বরাবর শঙ্কিত থাকে আন্তর্জাতিক মহল৷ পরমাণু হুমকির বাকযুদ্ধে আমেরিকা ও উত্তর কোরিয়া সমকক্ষ৷ সম্প্রতি এই সংঘাত তীব্র আকার নেয়৷ যার জেরে দুই উত্তর কোরিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভয়ঙ্কর যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুমকির জবাবে পাল্টা আমেরিকাকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন কিম জং উন৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ