পিয়ংইয়ং: শত্রুপক্ষের সবসময়ের ত্রাস উত্তর কোরিয়া। মাঝে মধ্যেই ভয়াবহ অস্ত্র পরীক্ষা করে চমক দেন সেদেশের সর্বাধিনায়ক কিম জং উন। এবার তিনি বানিয়ে ফেললেন এক পরমাণু অস্ত্রের মিনিয়েচার।

সম্প্রতি এক রিপোর্ট এমনটাই দাবি করেছে রাষ্ট্রসংঘ। রিপোর্টটি তৈরি করেছে রাষ্ট্রসংঘের সিকিউরিটি কাউন্সিল। তারা দেখেছে করোনা ভাইরাস অতিমারীর মধ্যেও অস্ত্র নিয়ে কর্মকাণ্ড জারি রেখেছে উত্তর কোরিয়া। শুধু তাই নয়, নিষিদ্ধ হওয়া সত্বেও বিভিন্ন অস্ত্রের সরঞ্জাম কিনছে তারা।

মঙ্গলবারই উত্তর কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির একট বৈঠকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গিয়েছে কিম জং উনকে। তারপরই এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসে।

জানা গিয়েছে, ব্যালিস্টিক মিসাইলের সাহায্যে বহন করা সম্ভব এমন একটি ছোট আকারের মিসাইল তৈরি করে ফেলেছে এই দেশ। এর সঙ্গেই উল্লেখ ক রা যায় যে ২০১৭ তে আমেরিকার মাটি স্পর্শ করতে পারবে এমন এক ব্যালিস্টিক মিসাইলও পরীক্ষা করে দেখেছিল উত্তর কোরিয়া।

এদিকে, উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনকে নিয়ে চর্চা চলছেই। এবার আবারও স্বাস্থ্য নিয়ে খবরের শিরোনামে তিনি। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রাক্তন কূটনৈতিকবিদ চাং সং মিন দাবি করেছেন, কোমায় রয়েছেন উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি কিম জং উন।

প্রকৃতপক্ষে দীর্ঘদিন ধরে কিম জং উনের স্বাস্থ্য নিয়ে চর্চা রয়েছে বিশ্বে। একসময় তাঁর মৃত্যু সংবাদে বিশ্ব আলোড়িতও হয়। তবে সমস্ত কিছুকে গুজব প্রমাণিত করে ফের প্রকাশ্যে আসেন কিম জং উন। দেখা যায় তিনি বহাল তবিয়তেই রয়েছে। এরপরে ফের একবার এমন দাবি ওঠায় কিম জং-এর স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে। যদিও এবার তাঁকে বৈঠকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গিয়েছে।

ডেইলি মেইলের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়ার ওই প্রাক্তন কূটনৈতিকবিদ জানিয়েছেন, কিম জং উন কোমায় রয়েছেন। তবে তিনি এখনও জীবিত।

এর আগে এমন বেশ কিছু খবর প্রকাশ পেয়েছিল, যেখানে বলা হয় উত্তর কোরিয়ার অর্থনীতি নিয়ে কিম জং অত্যন্ত চিন্তিত থাকায়, তিনি তার বোনকে আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন। বেশ কয়েকটি রিপোর্টে বিস্ফোরক দাবি করে বলা হয়, জলপ্না ছড়িয়েছে কিমের বোনই নাকি পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হতে চলেছেন। যদিও এ নিয়ে বিতর্কও দেখা দেয়।

তবে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক মোটেই ভালো নয়। সম্প্রতি একটি মার্কিন রিপোর্ট জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার কাছে রয়েছে অন্তত ৬০ টি নিউক্লিয়ার বোমা ও ৫০০০ টন রাসায়নিক অস্ত্র। উত্তর কোরিয়ার কাছে রাসায়নিক অস্ত্র হিসেবে রয়েছে একাধিক জীবাণু। স্মলপক্স কিংবা অ্যানথ্রাক্সের জীবাণু তারা মিসাইল এর মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতে পারে। যদিও কোনও পাকাপোক্ত প্রমাণ এব্যাপারে সামনে আসেনি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।