ফাইল ছবি

স্টার রিপোর্টার, বারাকপুর: করোনাতঙ্ক। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রেশন সংগ্রহ করুন। উত্তর ২৪ পরগনার শিউলি গ্রাম পঞ্চায়েতের মুদিবাড়ি রেশন দোকানের বাইরে গ্রাহকদের এভাবেই সচেতন করছেন পুলিশ কর্মীরা । এই ছবি ধরা পড়ল আমাদের ক্যামেরায়। করোনা মোকাবিলায় মানুষকে সুরক্ষিত থাকতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই সাধারন মানুষ যাতে রেশন দোকান থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ করে সেদিকে সতর্ক নজর রেখেছেন পুলিশ কর্মীরাও। বুধবার সকাল থেকে রাজ্য জুড়ে নাগরিকদের বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। রেশন দোকান গুলিতেও সাধারন গ্রাহকদের ভালো উপস্থিতিও লক্ষ্য করা গিয়েছে। তবে, করোনাভাইরাসের সংক্রমন থেকে মানুষকে সুরক্ষিত রাখতে রেশন দোকানের সামনে দাড়িয়ে পুলিশ কর্মীরা সচেতন করছেন সাধারন গ্রাহকদের।

উত্তর ২৪ পরগনার শিউলি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত মুদিবারি রেশন দোকানের বাইরে দেখা গেল গ্রাহকদের লম্বা লাইন । রাজ্য সরকারের খাদ্য দফতরের পক্ষ থেকে গ্রাহকদের দেওয়া হচ্ছে ২ কেজি চাল, ৩ কেজি গম বা ৩ কেজি আটা । গ্রাহকরা যাতে সুশৃঙ্খল ভাবে সাজাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রেশন দোকান থেকে খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ করতে পারে, সেই কারনে রেশন দোকানের বাইরে দেড় মিটার দূরত্বে গোল জায়গা শনাক্ত করে সেখানে লাইন দিয়ে গ্রাহকদের দাঁড়াতে বলা হয়েছে ।

রেশন দোকানের ডিলাররাও জানিয়ে দিয়েছে, “কোন গ্রাহক বঞ্চিত হবেন না । সকলেই তাদের রেশন কার্ড অনুসারে খাদ্যদ্রব্য পাবেন । পর্যাপ্ত খাদ্য পাঠানো হয়েছে রাজ্যের সমস্ত রেশন দোকান গুলিতে ।” অত্যন্ত দরিদ্র, যাদের রেশন কার্ড নেই তাদেরও খাদ্যদ্রব্য বিনামূল্যেই দেওয়া হচ্ছে রেশন দোকান থেকে । আগামী সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত একই নিয়মে খাদ্যদ্রব্য গ্রাহকদের দেওয়া হবে বলে রাজ্য খাদ্য দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প