নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব আইন নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ৷ পাশাপাশি এই আইনের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যর নেতারা৷ তারই মাঝে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছেন এই আইন কার্যকর করতে বাধা দিলে তা হবে অসাংবিধানিক৷

পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, দেশ জুড়ে এই আইন নিয়ে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে বিরোধীরা আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে। অর্থাৎ দেশে এই মুহূর্তে এই আইনের প্রতিবাদস্বরূপ যে পরিস্থিতি হয়ে রয়েছে তার দায়ভার অর্থমন্ত্রী চাপালেন বিরোধীদের উপরেই।

এই আইনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সহ ৬ রাজ্যর মুখ্যমন্ত্রীরা। তাঁরা পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন নিজেদের রাজ্যতে এই আইন চালু করবেন না। সেই কারণেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী এই হুংকার দিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে রবিবার একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন নির্মলা। সেখান থেকে তিনি স্পষ্ট ভাবে জানান, যাদের এই আইন নিয়ে আপত্তি আছে তারা আলোচনা করুক। তিনি ওই অনুষ্ঠান থেকে জানান এই আইন মুসলিম বিরোধী নয়। এর ফলে ভারতের কোন বাসিন্দার কোনও ক্ষতি হবে না। তিনি আরও জানিয়েছেন, গত ছয় বছরে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে আসা বেশ কিছু উদ্বাস্তুকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে।

আপত্তি থাকলেও প্রতি রাজ্যতে এই আইন চালু করতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্র। সংবিধান অনুসারে দেশের সব রাজ্য এই আইন মানতে বাধ্য বলেও জানানো হয়েছিল। এছাড়াও কেন্দ্রের তরফ থেকে বলা হয়েছিল কোনও রাজ্য এই আইন মানতে না চাইলে ওই রাজ্যতে ৩৫৬ ধারা জারি করার অনুমতি কেন্দ্রের রয়েছে। সে দিক থেকে দেখতে গেলে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর এই হুংকার বেশ গুরুত্বপূর্ণ।