নয়ডা: ভোটের মুখে মদ উদ্ধার আকছারই ঘটে৷ কিন্তু বাজেয়াপ্ত না করে নষ্ট করে ফেলা হল প্রচুর বিয়ারের বোতল৷ নেশাপ্রেমীদের কাছে দু:সংবাদ তো বটেই৷ কারণ নষ্ট করে ফেলা হয়েছে এক লক্ষ লিটার বিয়ার৷ যার আনুমানিক বাজার মূল্য তিন কোটি টাকা৷

এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের নয়ডার গৌতম বুদ্ধ নগরে৷ তবে বেআইনী মদ নয়, আবগারি দফতরের আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, এই সব বিয়ারের বোতলের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল বলেই বোতলগুলিকে নষ্ট করে ফেলা হয়েছে৷ আবগারি দফতরের মতে প্রায় তিন কোটি টাকার বিয়ার নষ্ট করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন : রং পাল্টে বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গে ঢুকবে মাদক ইয়াবা

জেলা প্রশাসন, আবগারি দফতরের আধিকারিকদের উপস্থিতিতে বুলডোজার দিয়ে এই বিয়ারের বোতলগুলিকে গুঁড়িয়ে ফেলা হয়৷ মোট ১১ হাজার ৬৫২টি বোতল ছিল৷ এই বোতলগুলি মেয়াদউত্তীর্ণ হওয়ায় খোলা বাজারে যাতে বিক্রি না করা যায়, তা রুখতেই ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে প্রশাসন৷

এই বোতলগুলি আলাদা করে একটি গোডাউনে রাখা ছিল৷ বিভিন্ন কোম্পানির বিয়ারের বোতল ছিল সেখানে৷ কেন মেয়াদউত্তীর্ণ বিয়ারের বোতল ওই গোডাউনে মজুত করা হয়েছিল, তা খতিয়ে দেখছে আবগারি দফতর৷ উল্লেখ্য, এই গোডাউনটি সরকারের তত্ত্বাবধানে ছিল বলে জানা গিয়েছে৷ মোট বোতল ছাড়াও সেখানে ছিল প্রচুর বিয়ারের ক্যানও৷

আরও পড়ুন : আত্মসম্মানের লড়াই বলে কংগ্রেস ছেড়ে শিব সেনায় যোগ দিলেন প্রিয়াঙ্কা

এর আগে, দিল্লির বিধানসভা ভোটের পাঁচ দিন আগে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে প্রায় ৯ হাজার মদের বোতল বাজেয়াপ্ত করেছিল নির্বাচন কমিশন৷ দিল্লির উত্তম নগর এলাকার গুদাম থেকে এই মদের বোতলগুলি বাজেয়াপ্ত করে দিল্লি পুলিশ ও নির্বাচনী আধিকারিকদের একটি দল। ভোটের নির্বাচনী প্রচারের সময় ওই বোতলগুলি বিলি করার কথা জানতে পারে পুলিশ৷

ওই গুদামের মালিকের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। আর তাই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকরা। উত্তম নগর আসনের প্রার্থী নরেশ বালিয়ানের সঙ্গে ওই উদ্ধার হওয়া বোতলগুলির কোনও যোগ নেই বলে জানানো হয়েছে আম আদমি পার্টির তরফে। দলকে বদনাম করার জন্যই বিরোধীরা এই নোংরা খেলায় নেমেছে বলেও অভিযোগ করা হয় আপ পার্টির পক্ষ থেকে৷