স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: জলের কল থেকে বেরচ্ছে আগুন। অবিশ্বাস্য হলেও, এটাই সত্যি। উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার দেগঙ্গার চাকলা গ্রাম পঞ্চায়েতের মঞ্জিল আটি মোল্লাপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। আর এই ঘটনা ঘিরে রীতিমত হইচই পড়ে গিয়েছে দেগঙ্গার ওই গ্রামজুড়ে।

সূত্রের খবর, আগুন বের হওয়ার ঘটনা শুধু মাত্র কোনও একটি নলকূপে ঘটছে এমন তা কিন্তু নয়। জানা গিয়েছে, ওই গ্রামে অন্তত ১৫ টি নলকূপে একই ঘটনা ঘটছে।

যার ফলে গ্রামবাসীদের অনেকেই মনে করছেন, দেগঙ্গার চাকলা পঞ্চায়েত এলাকার মাটির তলায় গ্যাসের ভান্ডার রয়েছে। এদিকে এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। জানা গিয়েছে, ওই এলাকার নাগরিকরা চাইছেন অবিলম্বে তাঁদের গ্রামে এসে মাটি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখুক বিজ্ঞানীরা। শুধু তাই নয়। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার জেরে এখন গ্রামের সব নলকূপ গুলোকে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এই ঘটনায় কৌতুহলী জনতা চাকলা পঞ্চায়েত এলাকায় এসে দেখে যাচ্ছেন নলকূপ থেকে আগুন বেরোনোর দৃশ্য। জানা গিয়েছে, টিউবওয়েলের ভিতর থেকে প্রথমে আওয়াজ আসছে ঘড় ঘড় করে, তারপর মাথায় দেশলাই ঠুকলেই দাউ দাউ করে জ্বলে উঠছে আগুন।আর এই আগুন দেখেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে দেগঙ্গার চাকলা পঞ্চায়েতের মঞ্জিল আটি মোল্লা পাড়ার কয়েকশো বাসিন্দারা।

আতঙ্কে ও ভয়ে তাঁরা এখন টিউবওয়েলের জলে রান্না, খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। বাজার থেকে জল কিনেই এখন কাজ সারছেন তাঁরা। সূত্রের খবর, আগুন থেকে বড়ো কোনও দুর্ঘটনা এড়াতে ওই এলাকায় চলছে রাত পাহারার কাজ। এদিকে টিউবওয়েলের মুখ থেকে আগুন বেরনোর ঘটনার খবর চারিদিকে চাউর হতেই তা স্বচক্ষে দেখতে ছুটে আসছে দূর দূরান্তের গ্রামের লোকজন। আর উৎসাহী জনতার ভিড়ের চাপে অতিষ্ট হয়ে টিউবওয়েল গুলোতে তালা লাগিয়ে দিয়েছে গ্রামবাসীরা।

সূত্রের খবর, করিম মোল্লা, মহিদুল মোল্লা, নজরুল ইসলাম মোল্লা, সিরাজুল ইসলাম,সাহারুল মোল্লা, সফিকুল মোল্লা, মোশারেফ মোল্লা সহ প্রায় ১২ টি পরিবারের কলের মুখ দিয়ে এই আগুন বেরনোর ঘটনা রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে তাঁদের। গ্ৰামবাসীরা চাইছেন অবিলম্বে সরকার এটার পরীক্ষা নিরিক্ষা করে স্বাভাবিক করুক গ্ৰামের জলের পরিষেবা।

যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত প্রশাসনের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে খোদ জলের কলের মুখে আগুন দেখে উদ্ববেগে রয়েছেন এই এলাকার কয়েকশো পরিবারের লোকজন।