মুম্বই: হতে পারেন দেশের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি কিন্তু মুকেশ অম্বানির গত ১১ বছর বেতন বাড়েনি৷ রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ থেকে তিনি ১৫ কোটি টাকা বেতন পাচ্ছেন৷

অম্বানির বেতন ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা এবং কমিশন বাবদ ১৫ কোটি টাকা পাচ্ছেন ২০০৮-০৯ সাল থেকে, যারফলে বছরে ২৪ কোটি টাকার বেশি ত্যাগ করছেন৷

দেখা গিয়েছে, তাঁর জ্ঞাতি নিখিল ও হিতল মেসওয়ানি সহ পূর্ণ সময়ের ডিরেক্টরদের বেতন বেড়েছে ২০১৯ সালের মার্চে শেষ হওয়া আর্থিক বছরে ৷ রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-এর শেষ বার্ষিক রিপোর্টে বলা হয়েছে সংস্থার চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুকেশ অম্বানির বেতন এভাবে ১৫ কোটি টাকায় আটকে রাখা ম্যানেজমেন্টের ব্যক্তিগত বেতনের ক্ষেত্রে উদাহরণ স্বরূপ৷

২০১৮-১৯ সালে তাঁর পারিশ্রমিকে ধরা রয়েছে ৪.৪৫ কোটি টাকা বেতন ভাতা,যা তার আগের বছর ২০১৭-১৮ সালে পাওয়া ৪.৪৯ কোটি টাকার চেয়ে সামান্য কম৷ তবে কমিশন অপরিবর্তিত রয়েছে ৯.৫৩ কোটি টাকা তবে অন্যান্য সুযোগ সুবিধা ২৭ লক্ষ টাকা থেকে বেড়ে ৩১ লক্ষ টাকা করা হয়েছে৷ অবসরকালীন সুবিধা বাবদ ৭১ লক্ষ টাকা পাচ্ছেন৷

অম্বানি স্বেচ্ছায় ২০০৯ সালের অক্টোবরে তার পারিশ্রমিক ১৫ কোটি টাকার ভিতরে রেখেছেন যা সিইও-র বেতন ঘিরে বিতর্কের বিষয়৷ তাঁর বেতন আটকে থাকলেও অন্যান্য এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টরদের পারিশ্রমিক বেড়েছে৷

অম্বানির জ্ঞাতি ভাই নিখিল মেসওয়ানি এবং হিতাল মেসওয়ানি প্রত্যেকের পারিশ্রমিক বেড়ে হয়েছে ২০.৫৭ কোটি টাকা৷ তারা ২০১৭-১৮ সালে ১৯.৯৯ কোটি টাকা এবং ২০১৬-১৭ সালে ১৬.৫৮ কোটি টাকা ছিল৷ ২০১৫-১৬ সালে নিখিল পেতেন ১৪.৪২ কোটি টাকা এবং হিতাল পেতেন ১৪.৪১ কোটি টাকা৷ তার আগে ২০১৪-১৫ সালে তারা দুজনে প্রত্যেকে পেতেন ১২.০৩ কোটি টাকা৷

আবার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর পিএমএস প্রসাদ গত বারে পারিশ্রমিক বাবদ ৮.৯৯ কোটি টাকা পেলেও এবার তা বেড়ে ১০.০১ কোটি টাকা হয়েছে ৷ শুধু তাই নয় ২০১৪-১৫ সাল থেকেই পারিশ্রমিক ধাপে ধাপে বেড়েছে৷

একই রকম ভাবে রিফাইনারির প্রধান পবন কুমার কপিলের ধাপে ধাপে বেতন বেড়েছে৷ ২০১৪-১৫ সালে যেখানে তিনি পেতেন ২.৪১ কোটি টাকা সেখানে তা বেড়ে এখন হয়েছে ৪.১৭ কোটি টাকা৷

অন্যদিকে নন এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর নীতা অম্বানি কমিশন বাবদ পান ১.৬৫ কোটি টাকা ৷ যেখানে তিনি ২০১৭-১৮ সালে পেতেন ১.৫ কোটি টাকা এবং ২০১৬-১৭ পেতেন ১.৩ কোটি টাকা৷নীতা সিটিং ফি বাবদ পেয়েছেন ৭ লক্ষ টাকা যেখানে আগের বছর পেয়েছিলেন ৬ লক্ষ টাকা৷

স্টেট ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অরুন্ধতী ভট্টাচার্য ২০১৮ সালের ১৭ অক্টোবর রিলায়েন্সের বোর্ডে যোগ দেন এবং এই ক মাসে কমিশন বাবদ পান ৭৫ লক্ষ টাকা৷