নয়াদিল্লি: সরকার শনিবার পুরোপুরি উড়িয়ে দিয়েছে দেশজুড়ে অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরিগুলির বেসরকারিকরণের সম্ভাবনা৷ সারা দেশে এই কারখানাগুলি বেসরকারিকরণ করা হবে বলে আশংকা ছড়ানোয় ২০ অগস্ট থেকে টানা ৩০ দিনের ধর্মঘট করার হুমকি দিয়েছে অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরির কর্মীরা৷ প্রতিরক্ষামন্ত্রকের বরিষ্ঠ অফিসারদের একটি প্যানেল ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু করে দিয়েছে কারখানার ওই আন্দোলনরত কর্মীদের সঙ্গে৷ আলোচনার মাধ্যমে তাদের বোঝানোর চেষ্টা হচ্ছে অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বেসরকারিকরণের বিষয়ে যা রটেছে তা একেবারে গুজব৷ সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে রয়েছে এমন ৪১টি কারখানা, যেগুলি কাজ করছে অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডের অধীনে এবং এই বোর্ডের সদর দফতর কলকাতায় অবস্থিত৷

এই কারখানাগুলিতে রয়েছে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত পণ্য উৎপাদনের ২০০বছরের বেশি অভিজ্ঞতা৷ তাছাড়া জলে, স্থলে এবং অন্তরীক্ষে এই সংক্রান্ত পণ্যের জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা, গবেষণা,উন্নয়ন এবং বিপণনের কাজ চলে৷ শনিবার প্রতিরক্ষাজনিত পণ্য উৎপাদন বিষয়ক সচিব অজয়কুমার জানিয়েছেন, অনবরত প্রতিরক্ষামন্ত্রকের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে এমপ্লিয়জ ফেডারেশন অফ অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ড-এর ইতিবাচক এবং গঠনমূলক আলোচনা চলছে কর্পোরেটাইজেশন সংক্রান্ত সব রকম বিষয়ে৷ সেখানে সেটাও ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে, যে সরকারের কোনও রকম প্রস্তাব নেই এই অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডকে বেসরকারিকরণের এবং এই ধরনের কোনও আশংকা অমূলক৷

আলোচলারত অফিসারদের প্যানেল পরিবর্তে আন্দোলনরত কর্মীদের জানিয়েছে, বরং প্রস্তাব রয়েছে এই সংস্থাটিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রকের অধীনে রাষ্ট্রীয় সংস্থায় পরিণত করার৷ যাতে ১০০ শতাংশ মালিকানা থাকবে সরকারের৷ এমপ্লয়িজ ফেডারেশন ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছে যাদের মধ্যে রয়েছে অল ইন্ডিয়া ডিফেন্স এমপ্লয়িজ ফেডারেশন,ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডিফেন্স ওয়ার্কাস ফেডারেশন, ভারতীয় প্রতিরক্ষা মজদূর সংঘ এবং কনফেডারেশন অফ ডিফেন্স রেকগনাইজড অ্যাসোসিয়েশন৷

শুক্রবারই এই সব সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়েছে৷ আলোচনার মাধ্যমে এমপ্লয়িজ ফেডারেশনকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, কর্পোরেটাইজেশন-এ কর্মীদের স্বার্থ সুরক্ষিত থাকবে৷