ফাইল ছবি

আহমেদাবাদ: বিদেশি মন্ত্রী এবং বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজ বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, ফেব্রুয়ারি মাসে ফুলওয়ামা জঙ্গি হানার জবাব দিতে ভারতীয় বায়ু সেনার বিমান হানায় কোনও পাকিস্তান যোদ্ধা অথবা নাগরিকের মৃত্যু হয়নি৷

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০ সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যু হওয়ায় প্রতিক্রিয়ায় ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনা জৈশ মহম্মদের প্রশিক্ষণ শিবিরে আঘাত করে ৷ সু্ষমা স্বরাজ দাবি করেন, বায়ুসেনার আঘাত ছিল আত্মপ্রতিরক্ষার জন্য৷

ফাইল ছবি

তিনি বলেন,‘‘ আন্তর্জাতিক মহলকেই আমরা জানিয়েছি সশস্ত্র বাহিনীকে নির্দেশই দেওয়া ছিল আঘাতের সময় যেন তা পাক নাগরিক অথবা কোনও যোদ্ধার কোনও ক্ষতি না হয়৷’’ তিনি আরও বলেন,‘‘ সেনাকে বলাই ছিল তাদের লক্ষ্য হল জৈশ-ই- মহম্মদের শিবির যারা পুলওয়ামা আঘাতের জন্য দায়ি এবং সেনা সেটাই করেছে কোনও রকম পাক নাগরিক অথবা যোদ্ধার ক্ষতি না করে৷’’

তিনি দাবি করেছেন, এর ফলে আন্তর্জাতিক মহল ভারতকে সমর্থনই করেছেন৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করে, তাঁকে আন্তর্জাতিক নেতা হিসেবে উঠে এসেছেন বলেই দাবি করেছেন৷
২০০৮ সালে মুম্বই জঙ্গি হানার প্রসঙ্গ তুলে সুষমা স্বরাজের অভিমত, কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার ব্যর্থ হয়েছিল অন্য দেশগুলিকে পাশে নিয়ে পাকিস্তানকে একঘরে করতে যেখানে ওই জঙ্গি হানায় ১৪টি দেশের ৪০ জন বিদেশির মৃত্যু হয়েছিল৷