কলকাতা: ঠিক যেন আয়লার পুনরাবৃত্তি। কলকাতাকে ছুঁই ছুঁই করেও ছুঁতে পারল না ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। দিনভর দাপাদাপির পর রাতের দিকে কলকাতাকে স্বস্তি দিল সাইক্লোন।

সবকিছুর ওপর কড়া নজর রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কন্ট্রোল রুমে বসে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাজ্যবাসীকে সতর্ক করে লিখেছেন, কোনওভাবে আতঙ্কিত হবেন না। শান্ত থাকুন এবং নিরাপদে থাকুন বলে জানিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দুর্যোগ কেটে যাবে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। তবে, এখনই লোকজনকে তিনি রাস্তায় বেরোতে নিষেধ করেন। পরিস্থিতির দিকে সতর্ক দৃষ্টি রেখছে প্রশাসন। এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কলকাতা পুলিশের ড্রোন দিয়েই পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবহাওয়া সূত্রে খবর রাত ২টোর পর থেকে এ রাজ্য থেকে ক্রমশ কমতে শুরু করবে বুলবুল-এর প্রভাব। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি উন্নতিতে যে রবিবার দুপুর গড়িয়ে বিকেল হবে সে কথা জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- বাঁচাবে সুন্দরবন, ভয়ঙ্কর বুলবুলের গতি কমবে দক্ষিণ রায়ের রাজত্বে

বুলবুলের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে খেজুরি, নন্দীগ্রাম,নয়াচর,রামনগর সহ বেশ কয়েকটি এলাকা। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় সোমবার স্কুল বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে।উপকূলবর্তী এলাকায় ২৩৮ টি ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে রাজ্যসরকার চালু করেছে দুটি হেল্পলাইন নম্বর।সেদুটি হল ১০৭০ এবং ০৩৩-২২১৪ ৩৫২৬।পরিস্থিতি সামাল দিতে কলকাতা পুরসভাও জরুরি ভিত্তিতে কর্মীদের প্রস্তুত রেখেছে।এছাড়াও নিকাশি ও উদ্যান বিভাগের কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

কলকাতায় বালিগঞ্জের সিসিএফসির কাছে গাছ পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর মিলেছে। পাশাপাশি শহরের রিজেন্ট পার্কে গাছ ভেঙে পরে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান এক বাইক আরোহী।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ