ফাইল ছবি

গুয়াহাটিঃ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল অসম সরকার। এবার থেকে একটি পরিবারের দুজনের বেশি সন্তান থাকলে আর সরকারি চাকরি মিলবে না তাদের। ‘হাম দো, হামারো দো’, পুরানো এই পরিবার পরিকল্পনা স্লোগানকে সামনে রেখে এমনটাই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল সরকার। আগামী ১লা জানুয়ারি ২০২১ সাল থেকে লাগু হতে চলেছে এই নিয়ম। এবার থেকে সরকারি চাকরি পেতে হলে অবশ্যই সবাইকে এই বিষয়টিকে নজর রাখতে হবে।

অসম মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। সরকারের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। যদিও দেশের জনসংখ্যা কমাতে অসম সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছেন অনেকেই।

অসমের শিল্পমন্ত্রী মোহন পটওয়ারি জানিয়েছেন, এই বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা চলছিল। অবশেষে এই বিষয়ে ক্যাবিনেট সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান তিনি। ২০২১, ১ জানুয়ারি থেকে দুই সন্তান নীতি না মানলে সরকারি চাকরি মিলবে না।’

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে জননিয়ন্ত্রণে একটি প্রকল্পের খসড়া তৈরি করা হয় অসমে। যেখানে পরিস্কারভাবে বলা হয় যে, দুটির বেশি সন্তান থাকলে আর সরকারি চাকরি মিলবে না অসমে। শুধু চাকরি নয়, বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পেও এই নিয়ম লাগু হবে বলে জানানো হয়েছিল। এমনকী পুরসভা বা পঞ্চায়েত ভোটেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়। এরপর এই বিষয়ে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল মন্ত্রী পরিষদ।

অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়াল জানিয়েছেন, ছোট পরিবার নীতি অনুসারে ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে দুই জনের বেশি বাচ্চা রয়েছে এমন পরিবারগুলি আর সরকারি চাকরি পাবে না। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে অসম বিধানসভায় ‘অসমের জনসংখ্যা ও নারীদের ক্ষমতায়ন নীতি’ পাস করানো হয়। ওই নীতিতেই স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে যে, দু’টি সন্তান রয়েছে এমন চাকরিপ্রার্থীরাই কেবলমাত্র সরকারি কর্মসংস্থানের যোগ্য হতে পারবেন।