নয়াদিল্লি: এনআরসি ও সিএএ-র পাশাপাশি এনপিআর নিয়েও রয়েছে বিতর্ক। প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। এনপিআরের বিরোধিতা করেছে বিরোধী দলগুলি।

বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় অমিত শাহ বলেন, ‘এনপিআরে কোনও নথি লাগবে না’। এদিন তিনি বলেন, ‘‘এনপিআর প্রক্রিয়ায় কোনও নথি লাগবে না। যদি আপনার কাছে কোনও নথি না থাকে, তাহলে তা জমা দিতে হবে না। কাউকেই সন্দেহজনক হিসেবে চিহ্নিত করা হবে না’’।

উল্লেখ্য, এনপিআর-এ বাবা-মায়ের জন্মতারিখ, জন্মস্থান সংক্রান্ত তথ্য দিতে হবে বলে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছিল দেশ জুড়ে। এনপিআর বিরোধিতায় সোচ্চার হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ বিরোধীরা। এই প্রেক্ষিতে শাহের মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

এর আগেও এনপিআর নিয়ে সংশয় দূর করতে উদ্যত হয়েছিল মোদী সরকার। অমিত শাহের দফতরের মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানিয়েছিলেন, ‘‘এনপিআর আপডেটের জন্য কোনও নথি লাগবে না’’। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেছিলেন, বাড়ি বাড়ি এনপিআর আপডেট করার কাজ করা হবে। নাগরিকত্ব নিয়ে কোনও ভেরিফিকেশন করা হবে না। আধার কার্ডের তথ্য স্বেচ্ছায় দিতে পারেন। চলতি বছরের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বরে এনপিআরের কাজ হবে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প