নয়াদিল্লি: বুধবারই তাজমহল ইস্যুতে কেন্দ্রকে এক হাত নিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট৷ বলা হয়েছিল যদি সংরক্ষণ না করা যায়, তবে যেন ভেঙে ফেলা হয়৷ তার পরের দিন বৃহস্পতিবারই এই বক্তব্যের জবাব দিল কেন্দ্র৷

সংস্কৃতি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী মহেশ শর্মা জানিয়েছেন, তাজমহলের কাঠামোতে কোনও সমস্যা নেই৷ কোনও ধরণের ক্ষতি হয়নি মূল কাঠামোতে৷ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে তাজমহলের যথাযথ সংরক্ষণ করা হচ্ছে৷

এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংস্কৃতি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, এই ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্টে এফিডেফিট জমা দেবে কেন্দ্র৷ খুব শীঘ্রই এই এফিডেফিট জমা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে৷ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময়েই মহেশ শর্মা জানান, তাজমহলের আসল রঙে কোনও পরিবর্তন হয়নি৷ কাঠামোরও কোনও ক্ষতি হয়নি৷

তবে আদালতের পর্যবেক্ষণ ছিল, আগেই শ্বেতশুভ্র সৌধটির রঙ হলদেটে হয়ে গিয়েছিল এবং এখন তা ক্রমে বাদামী ও সবজে হয়ে যাচ্ছে। এরজন্য সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃপক্ষের রক্ষণাবেক্ষণের গাফিলতিকেই দায়ি করেছিল। বলেছিল সরকারের তরফে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। সরকারকে আদালতের পরামর্শ ছিল ভারত ও বিদেশের বিশেষজ্ঞদের ডেকে তাজমহলের ক্ষতির মূল্যায়ন করতে হবে। এবং এর তারপর একে আগের অবস্থায় ফেরানোর জন্য পদক্ষেপ নিতে হবে।
\

বুধবারই আদালত জানায়, ফ্রান্সের আইফেল টাওয়ারের থেকে অনেক সুন্দর দেখতে আমাদের তাজমহল৷ অথচ শুধু সংরক্ষণের অভাবে এখানে বিদেশি পর্যটকের অভাব৷ আইফেল টাওয়ারের সংরক্ষণ ও সৌন্দর্যায়নেই মুগ্ধ পর্যটকরা৷ তাই একটা টিভি টাওয়ারের মত দেখতে স্থাপত্য পরিদর্শনের জন্য লাখো মানুষ ভীড় করেন সেখানে৷

অথচ তার তুলনায় তাজমহলের সৌন্দর্যের জবাব নেই৷ সেখানে বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা নগণ্য৷ ফলে বিদেশি মুদ্রার আমদানিও কমছে দেশে৷ এই দিকে সরকারের নজর দেওয়া উচিত৷

সুপ্রিম কোর্ট এদিন আরও বলে সংরক্ষণ করতে না পারলে হয় তাজমহলকে বন্ধ করে দিন, নয়তো ধ্বংস করে ফেলুন৷ আর নয়তো সংরক্ষণের ব্যাপারে উদ্যোগী হন৷ আদালত এদিন জানায়, প্রতিবছর ৭০ মিলিয়ন পর্যটক ফ্রান্সে যান শুধু আইফেল টাওয়ার দেখতে৷ সেখানে তাজমহল দেখতে আসা বিদেশি পর্যটকদের সংখ্যা হাতে গোণা৷

এরআগে, এই একই ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্টে প্রবল ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হয় এএসআইকে৷ আদালত স্পষ্ট ভাষায় জানায় ঐতিহাসিক সৌধ তাজমহলকে রক্ষা করতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণে ব্যর্থ হয়েছে আর্কিওলজিকাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া। পাশাপাশি সর্বোচ্চ আদালত তাজমহলে কীটপতঙ্গের হানা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করে৷