নয়াদিল্লি: দীপাবলিতে আতসবাজি পোড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা নয়৷ জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট৷ তবে মঙ্গলবার শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, দীপাবলিতে রাত আটটা থেকে দশটা পর্যন্ত পোড়ানো যাবে আতসবাজি৷ সেই সঙ্গে অনলাইনে আতসবাজি বিক্রি করা যাবে না বলেও রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট৷

এই নির্দেশ শুধুমাত্র দীপাবলি উপলক্ষ্যে নয়৷ যেকোনও ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসবের ক্ষেত্রে এই নির্দেশ বহাল৷ জানাল শীর্ষ আদালত৷ অন্যদিকে ক্রিসমাস ও নিউ ইয়ারের ক্ষেত্রে আতসবাজি পোড়ানোর সময়সীমা রাখা হয়েছে রাত ১১:৪৫ মিনিট থেকে ১২:৪৫ মিনিট পর্যন্ত৷ অর্থাৎ এক ঘণ্টা আতসবাজি পোড়ানো যাবে৷

গত বছর দিল্লিতে আতসবাজি বিক্রির উপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল শীর্ষ আদালত৷ দীপাবলির সময় রাজধানীতে পরিবেশ দূষণ মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে যায়৷ দূষণের প্রভাব পড়ে মানব শরীরেও৷ তাই পরিবেশ রক্ষায় ও মানুষের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে দীপাবলির সময় আতসবাজি তৈরি ও বিক্রি বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট৷

পড়ুন: দিওয়ালি: রাজধানীর আনন্দে থাবা বসাতে হাজির আতসবাজির ধোঁয়া

সেই নিষেধাজ্ঞা এবার যাতে গোটা দেশে বহাল থাকে তার জন্য পিটিশন জমা করেন পরিবেশপ্রেমীরা৷ পিটিশনে তাঁরা জানান, সুস্থ পরিবেশে বেঁচে থাকার অধিকার সকলের৷ আর সুস্থ পরিবেশে বাঁচার জন্য চাই নির্মল বাতাস৷ দিল্লির কথা উল্লেখ করে আবেদনকারীরা জানান, বিশ্বের মধ্যে সবথেকে দূষিত শহর এটি৷ আর দূষণের প্রভাব গিয়ে পড়ছে কমবয়সীদের মধ্যে৷

তবে দীপাবলির আগেই, মঙ্গলবার সকালে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন ব্যবসায়ীরা৷ শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, দীপাবলিতে রাত আটটা থেকে দশটা পর্যন্ত পোড়ানো যাবে আতসবাজি৷ তবে অনলাইনে যে এই আতসবাজি বিক্রি করা যাবে না তাও স্পষ্ট করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট৷