নয়াদিল্লি: তবিলিগি জামাতে অংশ নেওয়া একগুচ্ছ বিদেশির ভিসা বাতিল করে দিল ভারত। বৃহস্পতিবারই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার জানানো হল কোন দেশের কতজনের ভিসা বাতিল করা হয়েছে।

৯৬০ জন তবলিগি জামাতের বিদেশি সদস্যের ভিসা বাতিল করে ব্ল্যাকলিস্টেড করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৩৭৯ জন ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা ও ১১০ জন বাংলাদেশি রয়েছে।

এছাড়া রয়েছে চিনের ৬ নাগরিক, ফ্রান্সের তিন জন, চার মার্কিন ও ৯ ব্রিটিশ।

তবলিগি জামাতের সদস্যরা বিভিন্ন রাজ্যে গিয়ে আক্রান্ত হচ্ছে করোনায়। ইতিমধ্যেই কয়েক’শ সদস্যকে চিহ্নিত করা গিয়েছে, যারা নিজামুদ্দিন মার্কাজের জমায়েতে ছিলেন।

সরকারি সূত্রে খবর, মার্চ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই নিজামউদ্দিনের ধর্মীয় সমাবেশে উপস্থিত একাধিক লোকের দেহে করোনার প্রাথমিক লক্ষন দেখা গিয়েছে। তাদের মধ্যো চিহ্নিত প্রায় ৪০০ জনের দেহে করোনা পজিটিভ মিলেছে। এই অবস্থায় সেদিনের ওই সমাবেশে হাজির প্রায় ৯ হাজার ব্যক্তিকে দেশের বিভিন্ন অংশ থেকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার সকাল থেকেই ওই এলাকা সম্পূর্ন ঘিরে ফেলা হয়েছে, এবং সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে ১৮০৪ জনকে নারেলা, সুলতানপুরী এবং বাক্কারওয়ালা কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

বিশ্ব জুড়ে ১০ লক্ষ মানুষ করোনা ভাইরাসের কোপে। আর এই পরিস্থিতির জন্য মানুষের পাপকেই দায়ী করলেন এই নিজামুদ্দিনের তবলিগি জামাতের মওলানা সাদ। নতুন এক অডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, ‘এতে কোনও সন্দেহ নেই যে মানুষের পাপই এই সমস্যার জন্য দায়ী। আল্লা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।’

গত কয়েকদিন ধরে নিজামুদ্দিন মার্কাজের ওই মওলানার খোঁজ চলছে। তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর হলেও কোনও হদিশ এখনও পায়নি পুলিশ। এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার সামনে এসেছে তাঁর ভিডিও বার্তা।