মুম্বই: কংগ্রেস,এনসিপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে জোট সরকার গড়তে চলেছে শিবসেনা। এই জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন উদ্ধব ঠাকরে। শুক্রবারই এই ‘মহা জোট’ সরকারের কথা জানিয়েছেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার।
সরকার গড়ার এই খবর সামনে আসতেই নয়া জোটের বিরুদ্ধে আক্রমণে নামে বিধানসভা নির্বাচনে শিবসেনার জোটসঙ্গী বিজেপি। এই নতুন জোট সরকারকে ‘সুবিধাবাদীদের জোট’ বলে কটাক্ষ করেন কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিবহণমন্ত্রী নীতিন গডকড়ী।

শুক্রবার একটি জনসভায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, ‘যারা জোট করেছে। তিনটি দলেরই আদর্শ আলাদা। সুবিধা পাওয়ার লোভে তাঁরা জোট করেছে। আমার মনে হয় এই জোট আট মাসও টিকবে না। তার আগেই ভেঙে যাবে।’

নির্বাচনী ফল প্রকাশের পর মহারাষ্ট্রে সরকার কে গড়বে, তা নিয়ে টানাপড়েন চলছিল প্রায় এক মাস ধরে। একমাস কেটে গেলেও কিছুতেই স্পষ্ট কোনও দিশা তৈরিs হচ্ছিল না মারাঠা রাজনীতিতে। ৯ই নভেম্বর বিধানসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় মহারাষ্ট্রে জারি হয় রাষ্ট্রপতি শাসন। কিন্তু, এইসবের মাঝেই সরকার গড়ার দিকে যে ইতিবাচক পথ তৈরি হচ্ছে তা আগেই জানিয়েছিলেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। অবশেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার জানান, মহারাষ্ট্রের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসের নয়া জোটেই এই সরকার হচ্ছে বলে জানান পাওয়ার।

যে কোনও জোট সরকারে আড়াই বছরের মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবি করে এসেছিল শিবসেনা। সমস্যার নিরসন হয়েছে তারও। এই প্রসঙ্গে শুক্রবার এনসিপি প্রধান জানিয়েছেন, আগামী পাঁচ বছররের জন্য মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন উদ্ধবই। মহারাষ্ট্রে জোট সরকারকে নেতৃত্বও দেবেন উদ্ধব।