নয়াদিল্লিঃ  জীবন বিমা নিগম (LIC)-তে নিজেদের সত্ত্বের একাংশ বিক্রি করার কথা ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। সীতারমণ তাঁর বাজেট ভাষণে জানিয়েছেন, ‘LIC-তে সরকারের সত্ত্বের একাংশ বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

জীবনবিমায় থাকা ভারত সরকারের শেয়ার বিক্রি করা হবে আইপিওর মাধ্যমে। এবারের বাজেটে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এমন প্রস্তাবের কথা শোনালেন।পাশাপাশি অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, আইডিবিআই ব্যাংকে থাকা সরকারি শেয়ার বিক্রি করে দেওয়া হবে। আগামী অর্থবর্ষে সরকার বিলগ্নীকরণের মাধ্যমে ২.১ লক্ষ কোটি টাকা তোলার লক্ষ্যমাত্রা। যেখানে বিশ্লেষকরা যা ধরেছিল এক লক্ষ কোটি টাকার তার থেকে অনেক বেশি। চলতি আর্থিক বছরের কেন্দ্রীয় সরকার বিলগ্নীকরণ করেছে ১৮০৯৪.৫৯ কোটি টাকা।

ইয়েস সিকিউরিটির এক কর্তা জানান, সরকার যে বিলগ্নিকরণের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে তা মূলত এই জীবনবিমার আইপিও থেকে উঠে আসবে বলেই ধরা হয়েছে৷ যা তাদের করা ১.৩৫ লক্ষ কোটি টাকার লক্ষ্যমাত্রার থেকে বেশি৷ প্রসঙ্গত চলতি বছরে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১.০৫ লক্ষ কোটি টাকা৷ সেখানে মিলেছে ১৮,০০০কোটি টাকা ৷ এবার দুটি আইপিও হয়েছে যাদের মধ্যে রয়েছে রেল বিকাশ নিগম(৪৭৫ কোটি টাকা ) এবং আইআরসিটিসি(৬৩৭ কোটি) ৷ তাছাড়া দেশের শত্রুর শেয়ার বেচে পাওয়া গিয়েছে ১৮৮১.২১ কোটি টাকা৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.