নয়াদিল্লি: লকডাউন চলছে দেশ জুড়ে। এই অবস্থায় ব্যাংক সম্পূর্ণভাবে না খোলায় অনেক ক্ষেত্রেই সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। তাই ব্যাংক কর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন অর্থমন্ত্রী নিমলা সীতারামণ। সোমবার থেকে ব্যাংক পরিষেবা সচল হওয়ার কথা জানানো হয়েছে তাঁকে।

অনেক ক্ষেত্রেই এটিএমে টাকা না থাকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে পারছেন না মানুষ। ওষুধ কেনায় ছাড়পত্র মিললেও হাতে টাকা নেই। তাই ব্যাঙ্কিং পরিষেবা সচল রাখতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্র। সব সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে ফোনে কথা বলার পর নির্মলা সীতারামন জানিয়েছেন, ব্যাঙ্কের কর্তারা আশ্বাস দিয়েছেন, সোমবার থেকে সব ব্যাংকের শাখা খোলা থাকবে। এটিএম এবং কাউন্টারেও পর্যাপ্ত নগদের জোগান থাকবে বলেও আশ্বস্ত করেছেন অর্থমন্ত্রী।

লকডাউনের মধ্যেও ব্যাংকগুলি যে ভাবে পরিষেবা দিচ্ছে, রবিবার তার জন্য কর্মীদের ধন্যবাদ জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, রবিবার সব ব্যাংকের কর্তাদের সঙ্গে আলাদা করে ফোনে কথা বলেছেন।

কথোপকথনের সময় কেন্দ্রীয় অর্থসচিব দেবাশিস পণ্ডা, যুগ্ম সচিব মদনেশ কুমার মিশ্র ও সুচিন্দ্রা মিশ্রের মতে শীর্ষ আধিকারিকরাও ছিলেন। ওই ফোন কলে সমস্ত শাখা ও এটিএম খোলা রাখার আর্জি জানান বলে মন্ত্রক সূত্রে খবর।

পরে টুইট করে তিনি জানান, ‘‘সরকারি ও বেসরকারি সব ব্যাংকের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশার কথা যে, সবাই জানিয়েছেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেও ব্যাঙ্কিং পরিষেবা সচল রাখতে তাঁরা সব রকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাঁরা নিশ্চিত যে গ্রাহকদের সব রকম পরিষেবা দিতে পারবেন।’’

এদিকে, একটি সার্কুলারে স্টেট ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে,এই চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতিতে যেভাবে কর্মীরা স্বার্থ ত্যাগ করে গ্রাহকদের পরিষেবা দিচ্ছে তার স্বীকৃতি স্বরূপ এটা অনুভব করা হয়েছে ওইসব কর্মীদের কিছু অতিরিক্ত পেমেন্ট করা দরকার। ব্যাংক যথেষ্ট সংবেদনশীল কর্মীদের উদ্বেগের ব্যাপারে এবং তাদের নিবেদিত প্রচেষ্টার প্রতি সংহতি দেখাতে।

এই অতিরিক্ত পেমেন্ট করা হবে সমস্ত কর্মীদের যারা ব্যাংকের শাখায়, সিপিসি, সিএসই, ট্রেজারি অপারেশন, গ্লোবাল মার্কেট, জিআইপসি এবং আইটি সার্ভিসে কর্মরত রয়েছেন। এই পেমেন্ট সংশ্লিষ্ট কর্মীদের দেওয়া হবে, এই মেয়াদকালের শেষে এইচ আর এম এস মারফত বলে জানানো হয়েছে। করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে অতি মহামারী আকার ধারণ করেছে। আর তা আটকাতে এদেশে ইতিমধ্যে সরকার ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।