ফাইল ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: অর্থমন্ত্রী পদে নির্মলা সীতারমণকে বসানোর আগে আরও ভাবনা চিন্তা করা উচিত ছিল কেন্দ্র সরকারের৷ এমনই মত লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরীর৷ তাঁর মতে অর্থমন্ত্রী হওয়ার কোনও যোগ্যতাই সীতারমণের নেই৷

বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাত বিশেষ আদালতে হাজিরা দিতে এসে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের ওলা উবের তত্ত্বটির সমালোচনা করেন অধীর চৌধুরী৷ তিনি এদিন বলেন যে “দেশের অর্থমন্ত্রী হওয়ার কোন যোগ্যতাই নেই নির্মলা সীতারামনের। দেশের মানুষ ওলা উবের চড়ছে বলে দেশে গাড়ি বিক্রি কমে গিয়েছে৷ এই যুক্তি যে অর্থমন্ত্রী দিতে পারেন তিনি তো কয়েক দিন বাদে বলবেন দেশের মানুষ ফুচকা খাচ্ছে চপ কাটলেট খাচ্ছে না তাই দেশের অর্থনীতিতে দুরবস্থা জন্ম নিচ্ছে।

আরও পড়ুন : ভোটে বাংলাদেশী-রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করতেই মমতার এনআরসি বিরোধিতা: লকেট

এদিন তিনি বলেন ছেলেমানুষীর একটা সীমা থাকে কিন্তু এই ধরনের অনভিজ্ঞ ব্যক্তিকে অর্থমন্ত্রকের এত গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকারের পুনর্বিবেচনা করা উচিৎ। অরুণ জেটলির উত্তরসূরী হওয়ার যোগ্য উনি নন। আসলে বিজেপি ভুল লোককে অর্থমন্ত্রকে বসিয়েছে। অর্থমন্ত্রক নির্মলা সীতারামন সামলাতে পারছেন না বলে অধীর চৌধুরীর অভিযোগ।

অধীর চৌধুরী এদিন ক্যালকাটা মেট্রো ডেয়ারির শেয়ার বিক্রিতে দূর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। তিনি বলেন যে ক্যাবিনেটে সিদ্ধান্ত নিয়ে শেয়ার বিক্রি সময় টেন্ডারে কারচুপি হয়েছে। আগামীদিনে আদালতে সেটা তিনি প্রমাণ করবেন। তার দাবী মেট্রোর শেয়ার বিক্রি পুরো বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানতেন। তবু সেই লাভজনক সংস্থার রাজ্যের শেয়ার বিক্রি করা হয়েছে জলের দরে। আর তার মধ্যেই অধীর চৌধুরী দূর্নীতি দেখতে দেখছেন।