নয়াদিল্লি: ২০১৩ সালে এক অভিশপ্ত রাতে দিল্লির রাস্তায় ভয়ঙ্কর গণধর্ষণের শিকার হন এক তরুণী। তাঁকেই ‘নির্ভয়া’ নামে ডাকতে শুরু করেন সবাই। শেষ লড়াইতে বাঁচতে পারেনি সে। তবে তাকে মনে রেখেছে মানুষ।

ঘটনার কথায় জানা যায়, ওই তরুণীর সঙ্গে সেদিন ছিলেন তাঁর বন্ধু। যাকে পরে একাধিক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে দেখা গিয়েছে। এবার নির্ভয়ার সেই বন্ধুকে নিয়েই এক চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে এল। সেই তথ্য ফাঁস করেছেন এক সিনিয়র সাংবাদিক।

অজিত আঞ্জুম নামে ওই সাংবাদিক ট্যুইট করে জানিয়েছেন, সাক্ষাৎকার দেওয়ার জন্য টিভি চ্যানেলগুলোর কাছ থেকে রীতিমত টাকা নিতে শুরু করেছিল ওই যুবক। তিনি জানান, নির্ভয়ার ঘটনায় অভিযুক্তদের যখন মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হল, তখন বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নির্ভয়ার স্টোরি দেখানো হচ্ছিল। আর সেইসময় একাধিক সংবাদমাধ্যমে সেদিনের ঘটনার কথা বলছিল ওই তরুণীর বন্ধু।

অজিত আঞ্জুম বলেন, তিনি যখন তাঁর সংবাদমাধ্যমে রিপোর্টারদের নির্দেশ দেন নির্ভয়ার বন্ধুকে স্টুডিওতে আনার জন্য, তখন সেই সাংবাদিকরা জানতে পারেন যে কয়েক হাজার টাকার বিনিময়ে স্টুডিওতে গিয়ে ইন্টারভিউ দিচ্ছেন ওই যুবক। এক যুবক যে নাকি তাঁর বান্ধবীকে চোখের সামনে গণধর্ষিতা হতে দেখেছে, সে এইভাবে চ্যানেলের সঙ্গে ডিল করছে, প্রথমটায় বিশ্বাস করেননি ওই সাংবাদিক।

এরপরই স্টিং অপারেশন শুরু করেন ওই সাংবাদিক। ফোনে কথা বলেন তাঁর এক সাংবাদিক। সেখানে এক লক্ষ টাকা চায় ওই যুবক। সবটাই রেকর্ড করা হয়। এরপর স্টুডিওতে ডেকে এনে তাঁকে জিজ্ঞেস করা হয় যে কেন তিনি এভাবে টাকা চান? উত্তরে সবটাই অস্বীকার করে যান ওই যবক। এরপর তাঁকে ওই স্টিং দেখানো হলে, তিনি ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন।