লন্ডন: বুধবার অবশেষে ধরা পড়েছেন নীরব মোদী।

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের ১৩,০০০ কোটি টাকা জালিয়াতি মামলায় অভিযুক্ত পলাতক ভারতীয় হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার ব্রিটেনের আদালতে উপস্থিত হয়ে তিনি বলেন, ২০ হাজার পাউন্ড অথবা ভারতীয় মুদ্রায় ১৮ লক্ষ টাকার মাসিক বেতনে লন্ডনে কাজ করছিলেন তিনি।

আপাতত নীরব মোদীকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিচারপতি বলেন, “যে বিপুল অঙ্কের অর্থ কেলেঙ্কারির অভিযোগ জড়িয়ে রয়েছে এবং তারপর আপনার দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা- সবটা নিয়েই আপাতত আপনাকে জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হল”।

নিজের জামিনের জন্য ৫ লক্ষ পাউন্ড অর্থ দিতে চেয়েছিলেন ৪৮ বছর বয়সী নীরব মোদী। তাঁর দাবি ছিল যে, তাঁকে আপাতত জামিন দেওয়া হোক। তিনি তদন্তে সম্পূর্ণ সাহায্য করবেন। কিন্তু, সেই আবেদন নাকচ হয়ে যায়। আপাতত তাঁকে আরও কয়েকটা দিন কাটাতে হবে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের জিম্মায়।

জানা গিয়েছে, ইডি এবার বিক্রি করতে পারবে তাঁর ১৭৩টি পেন্টিং যার মূল্য ৫৭,৭২ কোটি টাকা এবং রোলস রয়েস, পোর্সে, মার্সেডিজ, টয়োটা ফর্চুনার সহ ১১টি গাড়ি ৷ এগুলিকে নিলামে চড়ান হবে ২৬ মার্চের পরের মাসে৷ অনলাইনে নিলাম হবে।

এছাড়া আদালত আয়কর দফতরকে আরও ৬৮টি পেন্টিং বেচার অনুমতি দিয়েছে যা আগেই বাজেযাপ্ত করা হয়েছিল৷ নীরব মোদী বিরুদ্ধে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের ১৩,০০০ কোটি টাকার বেশি অংকের প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে৷