মুম্বই: আরবের তেল শোধনাগারে ড্রোন হানায় আন্তর্জাতিক বাজারে তৈরি হয়েছে আশংকা। যার প্রভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে স্টক মার্কেটেও। বৃহস্পতিবারও সেই ছবির কোন পরিবর্তন হল না। আর্থিক মন্দার থাবায় ভারতের শেয়ার বাজার এদিনও নিম্নমুখী।

দিনের শেষে সেনসেক্স ৪৭০.৪১ পয়েন্ট নেমে অবস্থান করছে ৩৬০৯৩.৪৭ পয়েন্টে এবং  নিফটি ১৩৫.৮৫ পয়েন্ট নেমে অবস্থান করছে ১০৭০৪.৮০ পয়েন্টে৷ এদিন সেনসেক্স ৩৬,৬১৩.৯৩ থেকে ৩৫,৯৮৭.৮০ পয়েন্টের মধ্যে চলাফেরা করেছে আর নিফটি ছিল ১০,৮৪৫.২০ পয়েন্ট থেকে ১০৬৭০.২৫ পয়েন্টের মধ্যে৷

 ব্যাংকিং, ইনফরমেশন টেকনলজি এবং মেটাল সেক্টরে পতন হওয়ার জন্যই বাজারে এই হাল। তবে অটো এবং কনসিউমার গুডসের সহায়তার জন্য তা কিছুটা সম্ভব হয়েছে।

এদিন সকালে সেনসেক্স ছিল ১৫৪.৯০ পয়েন্ট তলায়। নিফটি আগেরদিন বাজার বন্ধ হওয়ার সময়ের চেযে ৫৮.৬৫ পয়েন্ট কম। এদিকে অপরিশোধিত তেলের দাম একদিনের মধ্যে ব্যারেল প্রতি ৬১ডলার থেকে বেড়ে ৭০ ডলার দাম হয়েছে৷ গোটা দুনিয়া জুড়ে একটা অনিশ্চয়তা দেখা গিয়েছে৷ বিশেষজ্ঞদের ধারণা ব্যারেল প্রতি অপরিশোধিত তেলের দাম তিন অংক ছুঁতে পারে৷ এর জেরে ভারতে মন্দা ঘনীভূত হতে পারে বলেও অর্থনীতিদের একাংশ মনে করছে৷ এর যেমন শেয়ার বাজারে প্রভাব রয়েছে তেমনই আবার সোমবার রিজার্ভ ব্যাংক গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বিস্ময় প্রকাশ করেছেন বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশ হওয়ায়৷ বাজারে এরও প্রভাব পড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।