নয়াদিল্লি: নয়া তথ্য এনআইএর হাতে৷ জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা বা এনআইএ জানতে পেরেছে পাকিস্তান মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ ই মহম্মদ দলের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর জন্য বিশেষ অ্যাপের সাহায্য নেয়৷ সেই অ্যাপের নাম টেক্সট নাও৷ এনআইএ এই তথ্য পাঠাতে চাইছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে৷

ইউএস সিকিওরিটি এজেন্সির সাহায্য নিতে চাইছে এনআইএ৷ কি এই টেক্সট নাও অ্যাপ? সেই সংক্রান্ত আরও তথ্য জানার জন্যই মার্কিনি সহায়তা প্রয়োজন এনআইএর৷ জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার মতে এই অ্যাপ সম্পর্কে তথ্য পেলেই জইশের কাজকর্মের পদ্ধতি সম্পর্কে জানা যাবে৷ কীভাবে জইশ যুবকদের নিজেদের সংগঠনের অন্তর্ভুক্ত করে, তা জানা যাবে বলে মনে করছে এনআইএ৷

আরও পড়ুন : সাত সকালেই সাফল্য, নিরাপত্তা রক্ষীদের এনকাউন্টারে খতম জঙ্গি

এছাড়াও জইশ জঙ্গি সাজ্জাদ খান সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য পেয়েছে এনআইএ৷ কাশ্মীরের যুবকদের জইশে ভরতি করানোর ব্যাপারে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে এই সাজ্জাদ৷ মার্চের ২১ তারিখ দিল্লির লাল কেল্লার সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ৷ শাল বিক্রেতার ছদ্মবেশে সে দিল্লিতে ঘুরছিল বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷

এই সাজ্জাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই জইশের মোবাইল অ্যাপ টেক্সট নাওয়ের সন্ধান পায় এনআইএ৷ সে জানায় পুলওয়ামা হামলার মূল অভিযুক্তের সঙ্গেও তার ঘনিষ্ঠতা রয়েছে৷ এই অ্যাপের মাধ্যমেই তারা যোগাযোগ রাখত৷ টেক্সট নাও অ্যাপটি মূলত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সফটওয়্যার৷ তাই মার্কিনি সহায়তা প্রয়োজন এনআইএর৷

সাজ্জিদের বয়ান অনুযায়ী এই অ্যাপের সাহায্যেই সে পুলওয়ামা হামলার বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছিল৷ দিল্লিতে একটি স্লিপার সেল তৈরি করার নির্দেশও ছিল তার ওপর৷ তার জন্যও এই অ্যাপ ব্যবহার করত সে বলে জানা গিয়েছে৷