ব্রাসিলিয়া: কোভিডের কারণে স্থগিত হয়ে গিয়েছিল লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচগুলি৷ কিন্তু করোনার প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমায় শুরু হতে চলেছে ম্যাচগুলি৷ ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ যোগ্যতাঅর্জন পর্বের (World Cup qualifiers) ম্যাচে ব্রাজিল (Brazil) খেলবে ইকুয়েডর (Ecuador) ও প্যারাগুয়ের (Paraguay) বিরুদ্ধে। এই দু’টি ম্যাচের জন্য জাতীয় দলে ডাক পেলেন বর্ষীয়ান ডিফেন্ডার দানি আলভেস (Dani Alves) ও থিয়াগো সিলভা (Thiago Silva)৷ দলে ফিরলেন নেইমার (Neymar)৷ ব্রাজিলকে নেতৃত্ব দেবেন নেইমার দ্য সিলভা স্যান্টোস জুনিয়র।

শেষবার গত নভেম্বরে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ হয়েছিল। তারপর কোভিডের কারণে বাকি ম্যাচগুলি স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল৷ তবে আগের দু’টি ম্যাচে ভেনেজুয়েলা ও উরুগুয়ের বিরুদ্ধে ব্রাজিল দলে ছিলেন না আলভেস ও নেইমার। তবে দল ঘোষণার সময় নেইমার স্কোয়াডে থাকলেও ম্যাচের দু’সপ্তাহ আগে চোট পেয়ে দল থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন এই তারকা খেলোয়াড়৷

৪ জুন ইকুয়েডরের মুখোমুখি হবেন নেইমারেরা। তারপর ৮ জুন অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলবে প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে খেলবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এই দু’ ম্যাচের জন্য শুক্রবার ২৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেন ব্রাজিল কোচ তিতে (Brazil coach Tite)৷ দলে ৩৮ বছর বয়সি রাইট-ব্যাক আলভেস ও ৩৬ বছর বয়সি থিয়াগো সিলভার প্রত্যাবর্তনের কারণ ব্যাখ্যা করে তিতে বলেন, ‘ও ভালো খেলছে৷ জাতীয় দলের হয়ে চমৎকার অতীত রয়েছে। শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে ও নিজের সেরা অবস্থায় রয়েছে। ওরা দু’জন হল সেই ধরনের খেলোয়াড়, যারা এখনও ফুটবল খেলতে চায়।’

বাছাইপর্বে এখনও পর্যন্ত চার রাউন্ডের ম্যাচে মাঠে নামা হয়নি ব্রাজিলের প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক আলিসনের। প্রথম দু’ ম্যাচে দলে ছিলেন না তিনি। পরের দু’টি ম্যাচে দলে থাকলেও চোটের কারণে খেলা হয়নি তাঁর৷ লাতিন আমেরিকায় কনমেবল গ্রুপ থেকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের লড়াইয়ে এই মুহূর্তে শীর্ষেই রয়েছে ব্রাজিল। চার ম্যাচেই জিতেছে গ্যাব্রিয়েল জেসুস, রবের্তো ফির্মিনোরা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্তিনার (Argentina) চেয়ে দু’পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছে ব্রাজিল। প্রথম চার ম্যাচের সব ক’টিতে জিতে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়ছে ব্রাজিল। তিনটি জয় ও একটি ড্র করে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দু’ নম্বরে রয়েছে লিওনেল মেসির (Lionel Messi) আর্জেন্তিনা। ইকুয়েডর ৯ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে এবং প্যারাগুয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে চার নম্বরে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.