নিয়ন: ইউরোপে ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ৩ ম্যাচের জন্য নেইমারকে নির্বাসিত করল উয়েফা। যার ফলে আগামী মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বের প্রথম তিন ম্যাচে নেইমারকে পাবে না তাঁর ক্লাব পিএসজি।

গত ৬ মার্চ চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রাউন্ড অফ ১৬-র ম্যাচে ম্যাচ অফিসিয়ালদের বিরুদ্ধে অভব্য আচরণের কারণে নেইমারকে এহেন শাস্তির নিদান দিল ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ামক সংস্থা। চোটের কারণে নেইমার সেই ম্যাচে নামতে পারেননি মাঠে। ভিআইপি বক্সে বসেই ম্যান ইউয়ের বিরুদ্ধে দলের করুণ আত্মসমর্পন চাক্ষুষ করেছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা। প্রথম লেগে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয় লেগে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন করে নেইমারের ক্লাব পিএসজি’কে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দিয়ে শেষ আটে জায়গা পাকা করে সোল্কজায়রের ম্যান ইউ।

ম্যাচের ইনজুরি সময় ড্যালটের শট পেনাল্টি বক্সে কিমপেম্বের হাতে লাগতেই সমীকরণ বদলে যায় ম্যাচের। ম্যান ইউয়ের আবেদনে সাড়া দিয়ে ভিএআরের সাহায্যে রেড ডেভিলসদের পেনাল্টি পুরস্কৃত করেন রেফারি। স্পট-কিক থেকে স্কোরলাইন ৩-১ করে দলকে শেষ আটে পৌঁছে দেন ম্যান ইউ স্ট্রাইকার রাশফোর্ড।

ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে রেড ডেভিলসদের পেনাল্টি পাওয়াকে কেন্দ্র করেই দানা বাঁধে বিতর্ক। নেইমারের মতে ইনজুরি সময়ের ওই ঘটনায় কোনওভাবেই পেনাল্টি প্রাপ্য ছিল না ম্যান ইউয়ের। ম্যাচ শেষের কিছুক্ষণের মধ্যেই এবিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। রেফারিকে তিরস্কার করে নেইমার লেখেন, ‘এটা অন্যায়। উয়েফা চারজন এমন অফিসিয়ালদের ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছে, যাদের ফুটবল কিংবা ভিএআর সম্পর্কে ধারণা নেই। হাতের পিছনে বল এসে লাগলে কোন নিয়মে সেটা হ্যান্ডবল হয়?’ ইনস্টাগ্রামে প্রশ্ন তোলেন ব্রাজিলিয়ান।

শুধু তাই নয়, এরপর অফিসিয়ালদের উদ্দেশ্য করে অশ্লীল শব্দও প্রয়োগ করেন পিএসজি তারকা। হতাশায় আসন ছেড়ে উঠে দাঁড়িয়ে হাত-পা ছুঁড়ে অভিব্যক্তিও প্রকাশ করতে দেখা যায় নেইমারকে। ঘটনায় স্বভাবতই নড়েচড়ে বসে ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ামক সংস্থা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ম্যাচ অফিসিয়ালদের তিরস্কার ও কাঠগড়ায় তোলার কারণে প্রাথমিকভাবে নেইমারকে অভিযুক্ত করে উয়েফা।

এরপর ঘটনার তদন্তে নেমে নেইমারের কৃতকর্মের কারণে নিয়োগ করা হয় একজন ইনভেস্টিগেট ইন্সপেক্টর। তাঁর তদন্তের ভিত্তিতেই প্রাথমিকভাবে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে অভিযুক্ত করে উয়েফা। ঘটনার গুরুত্ব বিচার করে অবশেষে নেইমারকে ইউরোপের ক্লাব সর্বোচ্চ পর্যায়ের ফুটবলে ৩ ম্যাচ নির্বাসিত করল উয়েফা।