হ্যামিলটন: নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ওয়ান ডে সিরিজে জয় ছিনিয়ে নিলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজে হতাশ করল ‘উইমেন ইন ব্লু’। অকল্যান্ডে হারের ফলে সিরিজ আগেই খুঁইয়েছিল ভারত। হ্যামিলটনে রবিবার তৃতীয় ম্যাচেও মন্ধনার দুরন্ত ব্যাটিং জয় এনে দিতে পারল না হরমনপ্রীত অ্যান্ড কোম্পানিকে। নিয়মরক্ষার ম্যাচে ২ রানে থ্রিলার জয় ছিনিয়ে নিল কিউয়িরা। ফলে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ০-৩ ব্যবধানে পর্যুদস্ত হতে হল ভারতকে।

রবিবাসরীয় সেডন পার্কে মূলত সোফি ডিভাইনের অল-রাউন্ড পারফরম্যান্সেই ম্যাচ হারতে হল ভারতকে। প্রথম ম্যাচে দুরন্ত অর্ধশতরানের পর তৃতীয় ম্যাচেও কাজে এল না বাঁ-হাতি ওপেনার স্মৃতি মন্ধনার দুরন্ত ব্যাটিং। অন্যদিকে এদিন প্রথমে ব্যাট হাতে নেমে প্রথম ম্যাচের মতই ঝলসে উঠল কিউয়ি ওপেনার সোফি ডিভাইনের ব্যাট। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৬২ রানের পর তৃতীয় ম্যাচে এই ব্যাটারের ব্যাট থেকে এল ঝকঝকে ৫২ বলে ৭২ রানের ইনিংস।

এছাড়াও আরেক ওপেনার সুজি বেটসের ২৪ ও অধিনায়ক স্যাটার্থওয়েটের ৩১ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬১ রান তোলে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। ভারতের হয়ে বল হাতে সবচেয়ে সফল দীপ্তি শর্মা। চার ওভারে ২৮ রান খরচ করে দু’টি উইকেট তুলে নেন তিনি। বাকি চার ভারতীয় বোলেরের প্রত্যেকেই পান একটি করে উইকেট।

১৬২ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে শুরু তেকেই মারমুখী হয়ে ওঠেন আইসিসি’র বর্ষসেরা মন্ধনা। তবে উল্টোদিকে মাত্র এক রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন প্রিয়া পুনিয়া। দ্বিতীয় উইকেটে জেমিমা রডরিগেজের সঙ্গে জুটি বেঁধে দলকে বৈতরণী পার করে দেওয়ার লক্ষ্য নেন বাঁ-হাতি মন্ধনা। একইসঙ্গে টি-টোয়েন্টি কেরিয়ারের অষ্টম অর্ধশতরান সম্পূর্ণ করেন তিনি। কিন্তু এরপরই ব্যক্তিগত ২১ রানে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসেন জেমিমা।

এরপর অধিনায়িকা হরমনপ্রীত মাত্র ২ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরলে ভারতের রান তাড়া গতি খানিকটা থমকে যায়। তবে ওয়ান ডে দলনায়িকা মিতালিকে সঙ্গে নিয়ে শতরানের লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়া মন্ধনাকে ব্যাটে একসময় জয়ের স্বপ্ন দেখা শুরু করে ভারতীয় দল। কিন্তু ১৫.৩ ওভারে ৬২ বলে ব্যক্তিগত ৮৬ রানে শেষ হয় বাঁ-হাতি ব্যাটারের দুরন্ত ইনিংস। শেষদিকে দীপ্তি শর্মাকে সঙ্গে নিয়ে মিতালি চেষ্টা চালালেও লক্ষ্যমাত্রা থেকে তিন রান দূরে থমকে যেতে হয় তাদের।

শেষ ওভারে থ্রিলার জয় ছিনিয়ে নিতে ভারতের দরকার ছিল ১৬ রান। কিন্তু অভিজ্ঞ ক্যাসপারেকের শেষ ওভারে ১৩ রানের বেশি তুলতে পারেননি মিতালি-দীপ্তিরা। ফলে ২ রানের থ্রিলার জয়ে সিরিজে ভারতকে ক্লিন সুইপ করে কিউয়িরা। ব্যাট হাতে ৭২ রানের পর বল হাতেও এদিন দু’টি উইকেট তুলে নেন ডিভাইন। ১৮০ রান করে সিরিজের সর্বোচ্চ রানস্কোরার মন্ধনা।