নটিংহ্যাম: রোদ্দুরের দেখা নেই, বিগত কয়েকদিন ধরে নটিংহ্যামে হাইড অ্যান্ড সিক খেলছে বৃষ্টি। চলতি বিশ্বকাপের চতুর্থ ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার আশঙ্কায় প্রহর গুনছে ট্রেন্ট ব্রিজ। বুধবার যদিও ঘন্টাখানেকের নেট সেশনের সুযোগ পেয়েছেন কোহলিরা। কিন্তু আবহাওয়াকে হারিয়ে ক্রিকেট কি ট্রেন্ট ব্রিজে বৃহস্পতিবার জিততে পারবে ক্রিকেট? সেটা সময় বলবে।

কিন্তু প্রথম দু’ম্যাচ জিতলেও টুর্নামেন্টের তৃতীয় ম্যাচে নামার আগে বিশ্বকাপে কিউয়িদের বিরুদ্ধে পরিসংখ্যান খুব একটা স্বস্তিতে রাখবে না টিম ইন্ডিয়াকে। ২০০৩ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে শেষবারের সাক্ষাতে ভারত জয়ী হলেও বিশ্বক্রিকেটের মেগা আসরে দু’দলের ৭ বারের সাক্ষাতে ৪ বার জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড। ৩টি ম্যাচ জিতেছে ভারত। কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপে তিনবারের সাক্ষাতে ভাগ্য একবারও সহায় হয়নি দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। এমনকি বিশ বছর আগে এই নটিংহ্যামেই কিউয়িদের কাছে ৫ উইকেটে বিধ্বস্ত হয়েছিল আজহারউদ্দিনের ভারত।

তবে বিগত ৭ বারের তুলনায় প্রেক্ষাপট অনেকটাই আলাদা। বৃহস্পতিবার ট্রেন্ট ব্রিজে মিথ ভাঙতেই মাঠে নামবে বিরাটের নেতৃত্বাধীন টিম ইন্ডিয়া। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জয়ের ফলাফল মেন ইন ব্লু’কে আত্মবিশ্বাস জোগালেও প্রস্তুতি ম্যাচে বোল্টের ধাক্কায় বেসামাল হয়েছিল ভারতের ব্যাটিং লাইন-আপ। তাই মেঘলা আবহাওয়ার ফায়দা তুলে নটিংহ্যামের বাইশ গজে ফের ফুল ফোটাতে পারেন বোল্ট-ফার্গুসনরা। তবে শিখর ধাওয়ানকে না পেলেও এতটুকু মনোবল হারাতে রাজি নয় ভারতীয় দল। বরং ভারতীয় থিঙ্কট্যাঙ্কের বিশ্বাস কিউয়ি পেসারদের তুলোধনা করার মত যাবতীয় রসদ এখনও মজুত ধাওয়ানহীন ভারতের ব্যাটিং লাইন আপে।

অন্যদিকে প্রথম তিন ম্যাচে শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানকে হারিয়ে চনমনে নিউজিল্যান্ডও চাইবে ভারতের বিরুদ্ধে পরিসংখ্যানের পাল্লা আরও ভারি করে নিতে। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় প্রথম পাঁচে রয়েছেন দুই কিউয়ি বোলার লকি ফার্গুসন ও ম্যাট হেনরি। নটিংহ্যামের আবহাওয়া কাজে লাগিয়ে জ্বলে ওঠার অপেক্ষায় বোল্টও। ট্রেন্ট ব্রিজের এক্সট্রা বাউন্স অবশ্যই পেসারদের পক্ষে সহায়ক। এই মাঠেই দু’টি ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেসারদের দাপটের কথা স্মরণ করিয়ে ম্যাচের আগে হুঙ্কার দিয়ে রাখলেন কিউয়ি পেসার ফার্গুসন। সবমিলিয়ে আবহাওয়া সহায় হলে টুর্নামেন্টে অপরাজিত থাকার লক্ষ্য নিয়েই ট্রেন্ট ব্রিজে সম্মুখসমরে ভারত-নিউজিল্যান্ড।

বিশ্বকাপে ৭ বারের সাক্ষাতের ফলাফল:
১৪ জুন ১৯৭৫ – ম্যাঞ্চেস্টার – নিউজিল্যান্ড জয়ী ৪ উইকেটে
১৩ জুন ১৯৭৯ – লিডস – নিউজিল্যান্ড জয়ী ৮ উইকেটে
১৪ অক্টোবর ১৯৮৭ – ব্যাঙ্গালোর – ভারত জয়ী ১৬ রানে
৩১ অক্টোবর ১৯৮৭ – নাগপুর – ভারত জয়ী ৯ উইকেটে
১২ মার্চ ১৯৯২ -ডুনেডিন – নিউজিল্যান্ড জয়ী ৪ উইকেটে
১২ জুন ১৯৯৯ – নটিংহ্যাম – নিউজিল্যান্ড জয়ী ৫ উইকেটে
১৪ মার্চ ২০০৩ – সেঞ্চুরিয়ন ভারত জয়ী ৭ উইকেটে