মাউন্ট মাউনগানুই: পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করলেও পরবর্তী ওয়ান ডে সিরিজে ভারত এবার খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে। প্রথম দু’টি ম্যাচে হেরে বসায় সিরিজ ইতিমধ্যেই খুইয়েছে কোহলিরা। নিয়ম রক্ষার তৃতীয় তাথা শেষ ওয়ান ডে ম্যাচে জিততে না পারলে কিউয়ি সফরে পালটা চুনকাম হতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে।

এই অবস্থায় বে ওভালে টস-ভাগ্য সঙ্গ দিল না ভারতের। আরও একবার টস জেতে নিউজিল্যান্ড এবং প্রত্যাশিতভাবেই ভারতকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় কিউয়িরা। অর্থাৎ মাউন্ট মাউনগানুইয়ে সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ ওয়ান ডে ম্যাচে টস হেরে শুরুতে ব্যাট করছে ভারত।

নিউজিল্যান্ড শিবিরে সুখবর হল, চোট সারিয়ে এই ম্যাচে মাঠে ফিরলেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। কাঁধে চোট পাওয়ায় টি-২০ সিরিজের শেষ দু’টি ম্যাচে এবং ওয়ান ডে সিরিজের প্রথম দু’টি ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি তিনি। নিউজিল্যান্ডের প্রথম একাদশে আরেকটি রদবদল হয়েছে। মার্ক চাপম্যানের জায়গায় প্লেয়িং ইলেভেনে ফিরেছেন মিচেল স্যান্টনার। অসুস্থতা সঙ্গে নিয়েই দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন টিম সাউদি। তিনি সুস্থ হয়ে যাওয়ায় প্রথম একাদশে জায়গা ধরে রেখেছেন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নিউজিল্যান্ড-এ দল থেকে ডেকে নেওয়া হলেও ইশ সোধি মাঠে নামার সুযোগ পাননি এই ম্যাচে।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে হওয়ায় হতাশ নন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি স্পষ্ট জানান যে, চ্যালেঞ্জটা তাঁর দল গ্রহণ করছে। প্রথমে ব্যাট করে স্কোরবোর্ডে বড় রান তোলাই এখন তাদের প্রধান লক্ষ্য। ভারত এই ম্যাচের প্রথম একাদশে একটি পরিবর্তন করেছে। কেদার যাদবকে বসিয়ে খেলানো হচ্ছে মণীশ পান্ডেকে।

ভারতের প্লেয়িং ইলেভেন: পৃথ্বী শ, ময়াঙ্ক আগরওয়াল, বিরাট কোহলি (ক্যাপ্টেন), শ্রেয়স আইয়ার, লোকেশ রাহুল (উইকেটকিপার), মণীশ পান্ডে, রবীন্দ্র জাদেজা, শার্দুল ঠাকুর, যুবেন্দ্র চাহাল, নভদীপ সাইনি ও জসপ্রীত বুমরাহ।

নিউজিল্যান্ডের প্লেয়িং ইলেভেন: মার্টিন গাপ্তিল, হেনরি নিকোলস, কেন উইলিয়ামসন (ক্যাপ্টেন), রস টেলর, টম লাথাম, জিমি নিশাম, কলিন ডি’গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, টিম সাউদি, কাইল জেমিসন ও হামিশ বেনেট।