হ্যামিলটন: বুধের সন্ধ্যায় হ্যামিলটনে অসম্ভবকে সম্ভব করলেন মহম্মদ শামি, রোহিত শর্মারা। বাইশ গজে এগারো জন ভারতীয় ক্রিকেটারের পাশাপাশি এদিন দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে বিরাটদের পাশে সবসময় ছিল সেডন পার্কের গ্যালারি। বড় সংখ্যায় এদিন স্টেডিয়ামের গ্যালারি ভরিয়েছিলেন ভারতীয় সমর্থকেরা। দেশের বাইরে আকছারই এমন ঘটনায় অভ্যস্ত ভারতীয় ক্রিকেট। কিন্তু সেই ভারতীয় সমর্থকদের মাঝে বসে গ্যালারিতে এক নিউজিল্যান্ড সমর্থকের গলাতেও বুধবার শোনা গেল ভারত ‘মাতা কি জয়’। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও পোস্ট হতেই তা ভাইরাল।

ভারতের ১৮০ রান তাড়া করতে নেমে শেষ ৪ বলে নিউজিল্যান্ডের জয়ের জন্য এদিন প্রয়োজন ছিল মাত্র ২ রান। কিন্তু বল হাতে অন্তিম ওভারে ম্যাচের নাটকীয় পটপরিবর্তন ঘটান বঙ্গ পেসার মহম্মদ শামিকে। টাই হওয়া ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। সেখানেও নাটক। শেষ দু’বলে দু’টি ছক্কা হাঁকিয়ে প্রয়োজনীয় ১০ রান তুলে ম্যাচের নায়ক রোহিত শর্মা। উত্তেজক ম্যাচের থ্রিলারের আঁচ যে গ্যালারিতে গিয়ে পড়বে সেটাই স্বাভাবিক। পড়লও তাই। গ্যালারিতে দেশের সমর্থনে গলা ফাটানো ভারতীয় সমর্থকদের অনুকরণ করে ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলে মুষ্ঠিবদ্ধ হাত উপরে ছুঁড়ে দিলেন এক কিউয়ি সাপোর্টার।

জনৈক এক ভারতীয় সমর্থক সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন সেই ভিডিও। ১৬ সেকেন্ডের সেই ভিডিও এখন ভাইরাল ইন্টারনেটে। থ্রিলার ম্যাচ সুপার ওভারে জিতে প্রথমবার নিউজিল্যান্ডের মাটিতে টি-২০ সিরিজ জয়। তবে ভারতের ঐতিহাসিক জয় যে খুব সহজে আসেনি তা ম্যাচের ফলাফলেই স্পষ্ট। পেন্ডুলামের মতো দুলতে থাকা এই ম্যাচের শুরুতে এদিন টস জিতে প্রথমে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠান কিউয়ি অধিনায়ক। রোহিতের বিস্ফোরক ৪০ বলে ৬৫, কোহলির ২৭ বলে ৩৮ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭৯ রান তোলে ভারতীয় দল।

জবাবে উইলিয়ামসনের অধিনায়কোচিত ৯৫ ভারতের ম্যাচ জয়ের পথে কাঁটা হয়ে ওঠে। কিন্তু অন্তিম ওভারে শামির ম্যাজিক স্পেলে ম্যাচ টাই করতে সক্ষম হয় কোহলিরা। এরপর সুপার ওভারে প্রথমে ব্যাট করে ১৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা দেয় নিউজিল্যান্ড। সেখানেও টুইস্ট। শেষ ২ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১০ রান। কিন্তু হিটম্যানের কাছে এযাত্রায় মাথা নোয়াতে হয় অভিজ্ঞ টিম সাউদিকে। শেষ দু’বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ সেই সঙ্গে ঐতিহাসিক সিরিজ জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া।