সিডনি: অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ টেস্টে অনিশ্চিত নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন৷ একা ক্যাপ্টেনই নন, কিউয়ি স্কোয়াডের আরও দুই তারকাও শেষমেশ এসসিজি’তে খেলতে নামতে পারবেন কি না, সে বিষয়ে এখনই নিশ্চিতভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না৷

নিউজিল্যান্ড দলের তিন তারকা একসঙ্গে ভাইরাল ইনফেকশনের বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছেন৷ উইলিয়ামসন ছাড়া এই তালিকায় রয়েছেন হেনরি নিকোলস ও মিচেল স্যান্টনার৷ উইলিয়ামসন ও নিকোলস পর পর দু’দিন দলের অনুশীলনে হাজির থাকতে পারেননি৷ স্যান্টনার বৃহস্পতিবার জ্বরের উপসর্গ নিয়ে হোটেলবন্দী ছিলেন৷

আরও পড়ুন: পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া নিউজিল্যান্ড সফরে আসল চ্যালেঞ্জ, সাবধানী রাহানে

এই অবস্থায় সিডনিতে পুর্ণ শক্তির দল নামানোই মাথা ব্যথা হয়ে দাঁড়িয়েছেন কিউয়ি শিবিরের৷ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তড়িঘড়ি দেশ থেকে গ্লেন ফিলিপসকে উড়িয়ে এনেছে নিউজিল্যান্ড৷ এই প্রথমবার টেস্ট স্কোয়াডের জন ডাক পেলেন গ্লেন৷ পড়ে পাওয়া সুযোগে তিনি টেস্ট ক্যাপ হাতে পেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না৷

নিউজিল্যান্ড কোচ গ্যারি স্টেড বলেন, ‘আমরা সবরকম বিকল্পই খোলা রাখছি৷ আশা করি কেন ও হেনরি শেষমেশ মাঠে নামতে পারবে৷ আমরা ওদের ফিটনেস প্রমাণ করার জন্য সবরকম সুযোগ দেব৷ নিতান্তই যদি ওদের কেউ একজন বা জু’জনেই মাঠে নামতে না পারে, তবে বিপল্প পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের৷’

আরও পড়ুন: বয়স ভাঁড়িয়ে নির্বাসিত বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক

টেস্ট স্কোয়াডের নবাগত গ্লেন সম্পর্কে কিউয়ি কোচ জানান, ‘গ্লেন বছর দুই হয়ে গেল টি-২০ দলের চৌহদ্দিতে রয়েছে৷ তাই হঠাৎ করে স্কোয়াডে যোগ দিলেও মানিয়ে নিতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়৷ তাছাড়া ওকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে ডেকে নেওয়া হয়েছে৷ ও যেরকম ফর্মে রয়েছে তাতে আশা করি মাঠে নামতে হলে দলের পারফরম্যান্সে অবদান রাখতে পারবে৷’