নেলসন: সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়েগিয়েছিল আগেই৷ নিয়ম রক্ষার তৃতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে বড় ব্যবধানে জয় তুলে নিয়ে তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করল নিউজিল্যান্ড৷

মাউন্ট মাউনগানুইয়ে সিরিজের প্রথম দু’টি ওয়ান ডে ম্যাচে কিউয়িরা যথাক্রমে ৪৫ ও ২১ রানের ব্যবধানে হারিয়ে দেয় সিংহলিদের৷ নেলসনে সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ একদিনের ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১১৫ রানে পরাজিত করে নিউজিল্যান্ড৷

আরও পড়ুন: বিশ্রাম দেওয়া হল টিম ইন্ডিয়ার তারকা পেসারকে

টসে জিতে শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক মালিঙ্গা ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান কিউয়িদের৷ প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৬৪ রান তোলে নিউজিল্যান্ড৷ জোড়া শতরান করেন রস টেলর ও হেনরি নিকোলস৷ হাফসেঞ্চুরি করেন ক্যাপ্টেন উইলিয়ামসন৷ পালটা ব্যাট করতে নেমে ৪১.৪ ওভারে ২৪৯ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা৷ ব্যর্থ হয় থিসারা পেরেরার একক লড়াই৷

নিউজিল্যান্ড ইনিংসের শুরুটা অবশ্য মনে রাখার মতো হয়নি৷ দলগত ৩১ রানের মধ্যে আউট হয়ে বসেন দুই কিউয়ি ওপেনার৷ গুপ্তিল ২ ও মুনরো ২১ রান করে লসিথ মালিঙ্গার শিকার হন৷ টেলরের সঙ্গে জুটি বেঁধে উইলিয়ামসন প্রাথমিক বিপর্যয় রোধ করেন৷ তৃতীয় উইকেটের জুটিতে ১১১৬ রান যোগ করে সান্দাকানের বলে আউট হন উইলিয়ামসন৷ সাজঘরে ফেরার আগে ৬টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৬৫ বলে ৫৫ রান করে কিউয়ি দলনায়ক৷

আরও পড়ুন: ব্যাট হাতে নামার আগে মহারাজের সান্নিধ্যে যুবরাজ

নিকোলসকে সঙ্গে নিয়ে টেলর চতুর্থ উইকেটের জুটিতে আরও ১৫৪ রান যোগ করেন৷ শেষে ৯টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ১৩১ বলে ১৩৭ রান করে মালিঙ্গার তৃতীয় শিকার হন টেলর৷ নিশামকে (১২) সঙ্গে নিয়ে নিকোসল অপরাজিত থাকেন ১২৪ রানে৷ ৮০ বলের আক্রমণাত্মক ইনিংসে ১২টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন তিনি৷

জবাবে শ্রীলঙ্কা একসময় ১ উইকেটের বিনিময়ে একশো রানের গণ্ডি টপকালেও ফার্গুসন-সোধির সাঁড়াশি আক্রমণে ধারাবাহিক উইকেট হারিয়ে আড়াইশোর আগেই অলআউট হয়ে যায়৷থিসারা পেরেরা দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৮০ রান করেন৷ ৬৩ বলের ইনিংসে তিনি ৭টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন৷এছাড়া ডিকওয়েলা ৪৬, ডি’সিলভা ৩৬, কুশল পেরেরা ৪৩ ও গুনতিলকে ৩১ রান করেন৷ফার্গুসন ৪টি ও সোধি ৩টি উইকেট দখল করেন৷