ক্রাইস্টচার্চ: ঘরের মাঠে ৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার মধুর প্রতিশোধ নিল নিউজিল্যান্ড৷ পরবর্তী ৩ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজের পর এবার ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজেও টিম ইন্ডিয়াকে পালটা হোয়াইটওয়াশ করল কিউয়িরা৷ ওয়েলিংটনে সিরিজের প্রথম টেস্টে ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়েছিল নিউজিল্যান্ড৷ এবার ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় টেস্টে কোহলিদের বিরুদ্ধে ৭ উইকেটে জয় তুলে নেয় কেন উইলিয়ামসনরা৷

আরও পড়ুন: প্রতিপক্ষের বিদায়ী তারকাকে জার্সি উপহার মন্ধনাদের

হ্যাগলি ওভালে জয়ের জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৩২ রান৷ তৃতীয় দিনের লাঞ্চের পরেই কিউয়িরা জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয়৷ টস হেরে শুরুতে ব্যাট করা ভারত প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয় ২৪২ রানে৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় ২৩৫ রানে৷ অর্থাৎ প্রথম ইনিংসের নিরিখে ৭ রানের সংক্ষিপ্ত লিড নেয় ভারত৷ তবে দ্বিতীয় দফায় চূড়ান্ত ব্যাটিং বিপর্যয়ে বড় রানের ইনিংস গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয় কোহলি অ্যান্ড কোং৷ দ্বিতীয় ইনিংসে ভারত অল-আউট হয় ১২৪ রানে৷ নিউজিল্যান্ড শেষ ইনিংসে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১৩২ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায় উইলিয়ামসনরা৷

আরও পড়ুন: লিটনের শতরানে দুরন্ত জয় টাইগারদের

দ্বিতীয় দিনের ৬ উইকেটে ৯০ রানের পর থেকে খেলতে নেমে ভারত তৃতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায়৷ শেষ ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড তৃতীয় দিনের লাঞ্চে বিনা উইকেটে ৪৬ রান তোলে৷ লাঞ্চের পর নতুন করে খেলা শুরু হলে এক ঘণ্টাতেই জয় নিশ্চিত করে কিউয়িরা৷

আরও পড়ুন: ক্যারিবিয়ানদের হোয়াইটওয়াশ করল শ্রীলঙ্কা

টম লাথাম ৫২ রান করে উমেশ যাদবের বলে আউট হন৷ অপর ওপেনার টম ব্লান্ডেল ৫৫ রান করে বুমরাহর বলে বোল্ড হন৷ উইলিয়ামসন ৫ রান করে বুমরাহ বলেই রাহানের হাতে ধরা দেন৷ রস টেলর ও হেনরি নিকোলস উভয়েই ব্যক্তিগত ৫ রানে অপরাজিত থাকেন৷ প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে ৪৯ রান করা কাইল জেমিসন ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন৷ দু’টি টেস্টে ১৪টি উইকেট নিয়ে সিরিজ সেরা হন টিম সাউদি৷