ক্রাইস্টচার্চ: দলের চূড়ান্ত ব্যাটিং বিপর্যয়ের মাঝে ব্যতিক্রমী শুভমন গিল ও হনুমা বিহারী৷ দুই তারকার মিলিত প্রয়াসে ভারত দু’শোর গণ্ডি টপকাতে সক্ষম হলেও নিউজিল্যান্ডের সামনে কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে ব্যর্থ হয়৷

ক্রাইস্টচার্চে নিউজিল্যান্ড-এ দলের বিরুদ্ধে চার দিনের প্রথম বেসরাকরি টেস্টে টস হারেন ভারত অধিনায়ক হনুমা বিহারী৷ কিউয়ি দলনায়ক হামিশ রাদারফোর্ড টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান ভারতকে৷ হ্যাগলি ওভালের তাজা পিচে কিউয়ি বোলাররা ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের শুরু থেকেই অস্বস্তিতে রাখে৷

আরও পড়ুন: হ্যামিলটনের গ্যালারিতে কিউয়ি সমর্থকের গলায় ‘ভারত মাতা কি জয়’, ভাইরাল ভিডিও

দুই ওপেনার অভিমন্যু ঈশ্বরন ও ময়াঙ্ক আগরওয়াল ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ৷ খাতা খুলতে পারেননি ময়াঙ্ক৷ ঈশ্বরন আউট হন ৮ রান করে৷ তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে প্রিয়ঙ্ক পাঞ্চাল ক্রিজ ছাড়েন ১৮ রান করে৷ দলগত ৩৪ রানের মাথায় ভারতীয়-এ দল তিন উিকেট হারিয়ে বসে৷

ক্যাপ্টেন হনুমাকে সঙ্গে নিয়ে শুভমন গিল চতুর্থ উইকেটের জুটিতে ১১৯ রান যোগ করেন৷ ব্যাক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করার পরেই আউট হন হনুমা৷ ৮টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৭৯ বলে ৫১ রান করেন তিনি৷ গিল আউট হন ৮৩ বলে ৮৩ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলে৷ তিনি ৯টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন৷

আরও পড়ুন: তরুণদের ক্রিকেটেও ‘স্পিরিট অফ ক্রিকেট’, কুর্নিশ রোহিতের

শুভমন আউট হওয়ার পরেই ধস নামে ভারতীয় ইনিংসে৷ টেল এন্ডাররা দৃঢ়তা দেখাতে না পারায় ভারত প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় ২১৬ রানে৷ কেএস ভরত ১৬, বিজয় শংকর ৮, শাহবাজ নদিম ১৮, মহম্মদ সিরাজ ২ ও ইশান পোড়েল ০ রানে আউট হন৷ মাইকেল রে ৪টি, ম্যাককঞ্চি ৩টি, জেকব ডাফি ২টি ও সিয়ান সোলিয়া ১টি উইকেট দখল করেন৷

পালটা ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড-এ দল প্রথম দিনের খেলা শেষ করে তাদের প্রথম ইনিংসে ২ উইকেটে ১০৫ রান তুলে৷ ক্যাপ্টেন রাদারফোর্ড ২৮ রান করে ইশান পোড়েলের বলে আউট হন৷ রাচিন রবীন্দ্র ৪৭ রান করে সিরাজের বলে সাজঘরে ফেরেন৷ উইল ইয়ং ২৬ ও আজাজ প্যাটেল ১ রান করে অপরাজিত রয়েছেন৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব